মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন

ঝালকাঠির পোনাবালিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান আবুল বাসার সাময়িক বরখাস্ত

গাজী মো.গিয়াস উদ্দিন বশির,ঝালকাঠি প্রতিনিধি ।
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
  • ৩২ Time View

গাজী মো.গিয়াস উদ্দিন বশির,ঝালকাঠি : নানা রকম অনিয়ম, দূর্নীতি ও সরকারী অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল বসার খানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউপি-১ শাখার  এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানাগেছে।

সংশ্লিষ্ট শাখার সিনিয়র সহকারি সচিব জেসমীন প্রধান স্বাক্ষরিত ৪৬.০০.৪২০০.০১৭.২৭.০০১.২০২০-৩৬৯ নং স্মারকের এক  প্রজ্ঞাপনে গত ১৬ জুন এ সাময়িক বরখাস্তের আদেশ করা হয়। সাময়িক বরখাস্তের আদেশের কপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত তিন বছরের ইউনিয়ন পরিষদের ট্যাক্সের টাকা মাসিক সভায় আলোচনা বা রেজুলেশন না করে আত্মসাত, করোনা কালিন  দূর্যোগ ব্যাবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের বরাদ্দকৃত ত্রানের চাল আত্মসাত, করোনা কালিন প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে অসহায় মানুষের মাঝে প্রদানকৃত ২৫০০ টাকার অর্থ বিতরণে অনিয়ম,এলজিএসপি-৩ এর প্রাপ্ত বরাদ্দ থেকে তথ্য সেবা কেন্দ্রের মালামাল না কিনে করে অর্থ আত্মসাত, ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের ফটোকপি কেনা বাবদ ৯০ হাজার টাকা আত্মসাধ, ইউনিয়ন ভিত্তিক করোনা টিকা দেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য কর্মীদের আপ্যায়নের ৩৫ হাজার টাকা আত্মসাত, ট্রেড লাইসেন্স ফি, ওয়ারিশ ফি, ওয়ারিশ সনদ ফি,অটোরিক্সা লাইসেন্স ফি এর তিন লাখ টাকা আত্মসাত, প্রাক্তন ইউপি সচিব দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের রেজুলেশনসহ সকল কার্যক্রম পরিচালনা করা এবং ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাওয়া ২০ সেট রিং স্লাপ ইউপি সদস্যদের না জানিয়ে বিতরণের অভিযোগ তদন্ত কর্মকর্তা কর্তৃক তদন্তে প্রমানিত হয়েছে।

ইতপূর্বে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক এই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার ( ইউনিয়ন পরিষদ ) আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুপারিশ করেছেন। এ বিষয়ে ঝালকাঠি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সবেকুন নাহার বলেন, ‘ পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল বাসার খানকে সোমবার সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। একই সাথে কেন তাকে স্থায়ী বহিস্কার করা হবে না সে বিষয়ে আগামী ১০ কার্য দিবসের মধ্যে কারন দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে। 

এব্যাপারে ৭ নং পোনাবালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবুল বাশার খান বলেন, মন্ত্রনালয়ের চিঠি এখনও আমি হাতে পাইনি। তবে একটি চিঠি আসছে শুনেছি। তিনি আরও বলেন, ইনিয়ন পরিষদের কয়েকজন সদস্য আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলো। তার তদন্তও হয়েছে, বলেন ইউপি চেয়ারম্যান আবুল বাশার খান স্বীকার করেন।

কিউএনবি/আয়শা/২১.০৬.২০২২ খ্রিস্টাব্দ/বিকাল ৫:১৪

সম্পর্কিত সকল খবর পড়ুন..
© All rights reserved © 2022
IT & Technical Supported By:BiswaJit
themesba-lates1749691102