বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

৪০০ টাকার জন্য বন্ধুরা মিলে খুন করে রিয়াজকে

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৮৫ Time View

ডেস্ক নিউজ : বগুড়ার শাজাহানপুরে কলেজছাত্র শাহরিয়ার ইসলাম রিয়াজ (১৭) হত্যারহস্য উন্মোচিত হয়েছে। মাত্র ৪০০ টাকার জন্য ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা তাকে ডেকে নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। 

গ্রেফতার তিন বন্ধু মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। 

বুধবার বিকালে শাজাহানপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আবদুর রউফ জানান, নতুন করে রাজা বাবু (২০) নামে আরেক বন্ধুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্বীকারোক্তি রেকর্ডের জন্য তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আদালতে স্বীকারোক্তি প্রদানকারী তিন বন্ধুরা হলেন- বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার পরানবাড়িয়া পূর্বপাড়ার শহিদুল ইসলামের ছেলে কাওসার (২২), ঝালোপাড়া গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে মাহমুদুল (২০) ও রামপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে শাহান (২০)। বুধবার গ্রেফতার রাজা বাবু উপজেলার রাধানগর গ্রামের আবুল খায়ের প্রামানিকের ছেলে।

পুলিশ, এজাহার ও স্বজনরা জানান, শাহরিয়ার ইসলাম রিয়াজ বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার পরানবাড়িয়া পূর্বপাড়া গ্রামের বাবলু মিয়ার ছেলে। সে শেরপুর ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল। রিয়াজ গত শনিবার বিকাল ৫টার দিকে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হয়। পরদিন রোববার সকালে মা আরজি খাতুন শাজাহানপুর থানায় জিডি করেন। সন্ধ্যার দিকে উপজেলার রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন ভুট্টা ক্ষেতে রিয়াজের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ পাওয়া যায়। তার বুকসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন এবং গলা ও পায়ের রগ কাটা ছিল।

পুলিশি তদন্তে জানা যায়, রিয়াজ একটি কাজের জন্য তার চাচাতো ভাই কাওসারকে ৪০০ টাকা দিয়েছিল। কাওসার কাজটি না করলেও টাকা ফেরত দিতে তালবাহানা করতে থাকে। একপর্যায়ে রিয়াজ টাকা ফেরত পেতে এক বড় ভাইয়ের মাধ্যমে কাওসারকে চাপ দেয়। এতে কাওসার ও তার বন্ধুরা অপমানিত বোধ করে। তারা এরপর প্রতিশোধ নিতে রিয়াজকে হত্যার পরিকল্পনা করে। 

পরিকল্পনা অনুসারে বন্ধুরা গত শনিবার বিকালে রিয়াজকে কৌশলে উপজেলার রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে উপর্যুপুরি ছুরিকাঘাত ও পা এবং গলার রগ কেটে হত্যা করে।

শাজাহানপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আবদুর রউফ জানান, তদন্তের একপর্যায়ে কাওসার, মাহমুদুল ও শাহানকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা স্বীকারোক্তি দেয়। তাদের হেফাজত থেকে হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়।

কিউএনবি/অনিমা/০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩/রাত ৮:০৫

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

আর্কাইভস

February 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫-২০২৩
IT & Technical Supported By:BiswaJit