১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:০০

কুম্ভমেলায় স্নান করে করোনায় আক্রান্ত নেপালের রাজা-রাণী

 

ডেস্কনিউজঃ কুম্ভমেলায় যোগ গিয়েছিলেন নেপালের সাবেক রাজা জ্ঞানেন্দ্র শাহ এবং রাণী কোমল। মঙ্গলবার তাদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ভারত থেকে দেশে ফেরার পর বিমানবন্দরে তাদের স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন কয়েকশ’ মানুষ। রাজা-রাণীর করোনা ধরা পড়ার পর ওই ব্যক্তিদেরও পরীক্ষা করা হচ্ছে।

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই কিছু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে ১ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে কুম্ভমেলা। যদিও দেশটিতে সংক্রমণ বাড়ার মধ্যে এভাবে কুম্ভমেলার আয়োজন নিয়ে শুরু থেকেই সমালোচনা হয়। কুম্ভমেলায় একের পর এক আখড়ায় করোনা ধরা পড়ে। এমনকি কুম্ভ থেকে ফিরলেই বাধ্যতামূলকভাবে করোনা পরীক্ষার কথাও বলেছে কয়েকটি রাজ্য।

এরই মধ্যে হরিদ্বারে কুম্ভমেলায় যোগ দিয়ে গঙ্গাস্নান সারেন ৭৩ বছর বয়সী জ্ঞানেন্দ্র এবং ৭০ বছর বয়সী কোমল। দেশে ফিরতেই নেপালের সাবেক রাজা-রাণীকে স্বাগত জানানো হয়। কিন্তু এখন তাদের করোনা ধরা পড়ায় সেখানে উপস্থিতদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালে ছেলে দীপেন্দ্রের হাতে হত্যার শিকার হন তৎকালীন রাজা বীরেন্দ্র বীর বিক্রম শাহ। পরে দীপেন্দ্রও আত্মহত্যা করেন। এরপর রাজা হন বীরেন্দ্রর ভাই জ্ঞানেন্দ্র। পরে ২০০৮ সালে গণবিদ্রোহের মুখে তাকে ক্ষমতা ছাড়তে হয়। নেপালে রাজতন্ত্র শেষ হয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়। তাই এখন রাজা জ্ঞানেন্দ্র খুব বেশি জনসমক্ষে আসেন না।

কিউএনবি/বিপুল/২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ/রাত ৯:৪৬

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন