১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:২৭

আশুলিয়া প্রেস ক্লাব নির্বাচনে কে হবেন অভিভাবক

মশিউর রহমান, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ২৮ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে আশুলিয়া প্রেস ক্লাব নির্বাচন। ঘড়ির কাটা যত ঘুরছে সময় তত ঘনিয়ে আসছে বাড়ছে জল্পনা-কল্পণা আর উৎকন্ঠা। সভাপতি পদ হলো শীর্ষে। আর এই অভিভাবক পদটির দিকে চোখ সকলের। ক্লাবের সদস্যসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় প্রশাসন, সাধারন মানুষসহ সবার দৃষ্টি এই অভিভাবকের মুকুটের দিকে। এবার আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের ৫ম দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন চারজন। এদের রয়েছে গ্রহণযোগ্য ও ভিন্ন ভিন্ন কৌঁশল। ফলে এ পদটিতে লড়াই হবে হাড্ডা-হাড্ডি। নির্বাচনকে ঘিরে এ পদের এই প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন। প্রচারণায় প্রযুক্তির ব্যবহারের পাশা-পাশি সূর্য উঠার আগেই ভোটারের বা সদস্যদের বাড়ির দরজায় স্ব-শরীরে হাজির হচ্ছেন। নিজেকে সুমিষ্ট আলাপণের মাধ্যমে উপস্থাপন আর বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিয়ে চাইছেন কাঙ্খিত ভোট। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে এই নির্বাচনী প্রচারণা।
প্রার্থীদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি:

                                           মোজাফফর হোসেন জয়
মোজাফফর হোসেন জয়ঃ বর্তমান আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোজাজফর হোসেন জয়। এই নির্বাচনের সভাপতি প্রার্থী। তিনি সংবাদ ভিত্তিক টিভি চ্যানেল সময় টিভিতে কর্মরত আছেন। পাশ-পাশি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। পেশাদারিত্ব হিসেবে শক্ত অবস্থানে রয়েছেন এই প্রার্থী দাবী অনেকের। নির্বাচনি প্রচারণায় রয়েছে, ক্লাবের উন্নয়নের পাশা-পাশি অপসাংবাদিকের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা। সংবাদ প্রকাশে সাধারন মানুষের বিশ্বাস ও আস্থার শক্ত অবস্থান তৈরী করা। পেশাদার সাংবাদিকের উন্নয়নে সর্বাত্তক সহযোগিতার পাশাপাশি সৃজণশীল ও পেশাদার সাংবাদিকদের সংগঠনে পরিণত করা। ডিজিটাল গবেষণা পদ্ধতি চালু করা, মান উন্নয়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা, ক্লাবের স্থায়ী ভবন তৈরী ও ক্লাবকে আধুনিকপ্রযুক্তিতে উন্নতকরণ। এছাড়া ওয়েজবোর্ড প্রাপ্তির জন্য চেষ্টা অব্যহত রাখা।                                                                 

                                               মোঃ শহীদুল্লাহ মুন্সী

মোঃ শহীদুল্লাহ মুন্সী: আশুলিয়া প্রেস-ক্লাবের সাবেক সভাপতি শহীদুল্লাহ মুন্সী। তিনি জাতীয় “দৈনিক খবরপত্র” পত্রিকার ষ্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত আছেন। সামাজিক কর্মকান্ডের পাশাপাশি রাজনীতির সাথেও জড়িত আছেন। আন্তরিকতা ও সহজে সবার সঙ্গে সাবলীলভাবে মিশতে পারেন বলে বাড়তি যোগ্যতা আছেন বলে ভাবছেন অনেকেই। তার এবারের নির্বাচনী প্রচারণায় রয়েছে, প্রেস ক্লাবের সার্বিক উন্নয়নের পাশাপাশি স্থানীয় সাংবাদিকদের আবাসন সুবিধাসহ নিজস্ব জমিতে প্রেসক্লাব ভবন নির্মাণ। এছাড়া পেশাগত দায়িত্বের মাধ্যমে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে কাজ করবেন। বিপদে-আপদে সহকর্মীদের পাশের থাকার কথা জানান তিনি।

                                        মোছা: শেফালী খাতুন মিতু

শেফালী খাতুন মিতুঃ নারী সাংবাদিক হিসেবে অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী তালিকায় হিসেবে রয়েছে শেফালী খাতুন মিতু। বর্তমানে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বাংলাভিশন ও দৈনিক মানবকন্ঠ পত্রিকায় কর্মরত আছেন। আশুলিয়া প্রেস ক্লাবে সভাপতি পদে এই প্রথম কোন নারী সাংবাদিক প্রদ্বন্দ্বীতা করায় অনেকের কাছে নির্বাচনটি ভিন্ন মাত্রা যোগ নিয়েছে।নির্বাচনি প্রচারণায় প্রেস ক্লাবের সার্বিক উন্নয়নের পাশাপাশি সাংবাদিকদের পেশাগত মান উন্নয়ন ও পেশাগত স্বার্থ সুরক্ষা প্রতিত বিশেষভাবে কাজ করতে চান

                                           মোঃ শাহ-আলমঃ

মোঃ শাহ-আলমঃ সভাপতি নির্বাচনে রয়েছেন আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের অপর সাবেক সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ শাহ-আলম। তিনি মাই টিভিতে কর্মরত রয়েছেন। তার সরলতা ও সাবলীল মুখের হাঁসি সদস্যদের কাছে টানার শক্তি বলে ভাবছেন অনেকে। প্রতিষ্ঠাকালীণ থেকে জড়িত রয়েছেন বলে জানিয়ে তার প্রচারণায় রয়েছে, প্রেস ক্লাবের মাধ্যমে সদস্যদের কল্যাণের জন্য কাজ করা। সদস্যদের জন্য শক্ত ফান্ড গঠন। সবাই স্বাধীন ভাবে কাজ করার সহযোগিতা পাবেন।

অন্যদিকে ভোটারদের প্রত্যাশাঃ যোগ্য ব্যক্তিকে অভিভাবক করবেন। এছাড়া সহকর্মীদের বিপদ- আপদে যাকে সব সময় পাশে পাবেন ও কাছে পাবেন এমন ব্যক্তিকেই অভিভাবক হিসেবে নির্বাচিত করবেন। সততা নিয়ে ক্লাবে উন্নয়নে কাজ করবে এমনটাই চাওয়া।

কুইকনিউজবিডি.কম/রিয়াদ  /২২শে মার্চ, ২০১৭ ইং/বিকাল ৪:১৪