১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৫৬

ভাণ্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে’র সেবা ও পরিবেশ পাল্টে দিয়েছে ডা. জহিরুল ইসলাম

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এইচ এম জহিরুল ইসলাম যোগদানের পর আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসেবার উন্নতি হয়েছে। ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য সেবার মানউন্নয়ন, অপ্রয়োজনীয় গাছপালা , আগাছা ও ড্রেনেজ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে কমপ্লেক্স এর জীবন্ত পরিবেশ ফিরিয়ে দেয়া হয়। এতে করে হাসপাতালটির স্বাস্থ্যকর পরিবেশ ফিরে এসেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জহিরুল ইসলামের নিজ উদ্দ্যোগে রোগীদের সুবিধার্থে নানা পরীক্ষার জন্য প্যাথলজি হাসপাতালের দ্বিতীয়তলা থেকে নিচতলায় স্থানন্তর করে ও হাসাপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীদের যথাসময়ে হাসপাতালে উপস্থিতি নিশ্চিত করেন। এছাড়া অফিস টাইমে রোগীদের নিকট থেকে কোন প্রকার ফি না নেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। এবং অসুধ কম্পানির প্রতিনিধি ও এম আরদের অফিস টাইমে হাসপাতাল ক্যাম্পাসে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। ফলে প্রান্তিক থেকে আসা রোগীরা নির্ভিগ্নে বিনামূল্যে ওষুধ সহ চাহিদানুযায়ী চিকিৎসাপত্র ও সঠিক সেবা পাচ্ছেন।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা ফাতিমা বেগম ও বৃদ্ধ এছাহাক আলী জানান, নতুন ডাক্তার আশায় হাসপাতালের পরিবেশ অনেক উন্নত লাগছে। মনেহয় একটি নতুন হাসপাতাল।
স্থানীয়রা জানায়, ডাক্তার জহিরুল ইসলাম এসেই নিজ উদ্দ্যোগে হাসপাতালের নতুন ডিজিটাল সাইবোর্ড স্থাপন করেছেন। তার এসব উন্নয়নমূলক উদ্দ্যোগকে আমারা স্বাগত জানাই। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এইচ এম জহিরুল ইসলাম জানান,স্বাস্থ্যসেবাকে জনসাধারণের দোর গোড়ায় পৌঁছে দিতে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ঘোষনাকে বাস্তবায়নে আমরা বদ্ধপরিকর। ভান্ডারিয়া হাসপাতালে দূরদূরন্ত থেকে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের সাধ্য মত সেবা দিচ্ছি। তবে এ কমপ্লেক্সে ডাক্তার সংকটে রয়েছে।

 

কুইকনিউজবিডি.কম/মেসবাহ/ ২৫শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং /সন্ধ্যা ৬:৫৮