২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১১:৩৩

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ : আহত ১৫

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। এ সময় প্রায় ২০টি ঘর-বাড়ি, দোকানপাট ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। গতকাল বিকালে কাশিয়ানী উপজেলার সাজাইল ইউনিয়নের কুসুম০দয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, বিগত ইউপি নির্বাচনসহ এলাকার আধিপত্য বিস্তার করাকে কেন্দ্র করে সাজাইল ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী জাহাঙ্গীর আলমের সাথে এ্যাডভোকেট মুরাদ হোসেন মোল্যা মিটু’র দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে গতকাল বিকালে উভয় পক্ষের সমর্থকরা ঢাল, সড়কি, রামদা ও টেঁটাসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় গোটা এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। দু’ঘন্টা ব্যাপী এ সংঘর্ষে ওই এলাকার প্রায় ২০টি বসতঘর ও দোকানপাট ভাংচুর, মালামাল লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে প্রতিপক্ষের সমর্থকরা।
এ সময় সড়কের ইট তুলে সংঘর্ষের কাজে ব্যবহার করে। এতে ওই এলাকার প্রায় এক কিলোমিটার সড়কও ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
একাধিক সূত্রে জানা গেছে, কাশিয়ানী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী জাহাঙ্গীর আলম ক্ষমতার অপব্যবহার করে এ সব সহিংসতার ঘটনার নেপথ্যে কলকাঠি নাড়ছেন। এতে করে করে ওই এলাকায় একের পর এক সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। সংঘর্ষে শফি উদ্দিন মোল্যা (৬২), এ্যাডভোকেট মোরাদ হোসেন (৪৫) রুবেল হোসেন মোল্যা (২৫), আকিজ মোল্যা (২০), শাহাদত মোল্যা (৩৫) আম্বিয়া খানম (২০) ও সুফিয়া বেগমসহ উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়। আহতদের কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

 

কুইকনিউজবিডি.কম/তপন/৩১শে ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং/বিকাল ৫:১১