১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৪০

চৌগাছায় প্রাথমিক শিক্ষা ভারপ্রাপ্তের ভারে আক্রান্ত

এমএ রহিমচৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা: যশোরের চৌগাছায় ৩১ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই। এ সকল স্কুলগুলোতে সহকারি শিক্ষকরা ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ফলে নেই কোন জবাব দিহিতা ও আইনের অনুশাসন। প্রতিষ্ঠান গুলোর প্রশাসনিক কর্যক্রম একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে। এদিকে সহকারি শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক। ফলে এ উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রমের মুখ থুবড়ে পড়েছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাযায় এ উপজেলায় ১শ ৩৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। যার মধ্যে ৩১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাই ১ যুগ যাবৎ প্রধান শিক্ষক নেই। ঐ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষকরাই ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ফলে নানা সমস্যা ও জটিলতা দেখা দিচ্ছে। প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক না থাকায় সাধারণ শিক্ষকরা ছুটি না নিয়েও স্কুলে আসেন না। ফলে পাঠদান দারুণ ভাবে ব্যবহত হচ্ছে। এছাড়া ইচ্ছা মত স্কুলে আগমন-প্রস্থান করলেও দেখার কেউ নেই। সরকার প্রাথমিক শিক্ষার আলো ঘরে ঘরে পৌছিয়ে দিতে ছয় থেকে দশ বছরের শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক করেছেন। নানা সমস্যার ফলে চৌগাছায় এ কর্মসুচি মাঠে মারা যাচ্ছে।

 

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দিয়ে চলছে বারুই হাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাওলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুক্তারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আড়কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নিউ আড়কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চন্দ্রপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাবিলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাড়–য়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আদমপুর হোগলডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাজীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, উজিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মির্জাপুর মধ্যপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আড়শিংড়ি পুকুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বুড়িন্দীয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলিশা যদুনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাঙ্গীরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বকশিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাঘারদাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাঁধবিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দক্ষিন সাগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ধুলিয়ানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মির্জাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বহিলাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় লয়, আড়ারদহ-নিমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাঁচবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভগবানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড় গোবিন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বলিদাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বেড়তাহেরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও দৌলতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন জানান প্রধান শিক্ষক নিয়োগ ও পদউন্নতি বন্ধ থাকায় এই শুন্য পদের সৃষ্টি হয়েছে।

 

 

কুইকনিউজবিডি.কম/তপন/৩১শে ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং/বিকাল ৩:৩০