ব্রেকিং নিউজ
২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১০:১০

পুতিনের প্রশংসায় ট্রাম্প

নিউজ ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হ্যাকিংয়ের ঘটনার তদন্ত নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে টানাপড়েন চলছে যুক্তরাষ্ট্রের। এরই মধ্যে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রশংসা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রে থাকা ৩৫ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তের পাল্টা জবাব না দেওয়ায় পুতিনের প্রশংসা করেন ট্রাম্প।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে এক টুইটে ট্রাম্প বলেন, ‘দেরিতে হলেও ভালো জবাব (ভ্লাদিমির পুতিনের)—আমি সব সময় জানি তিনি খুবই বুদ্ধিমান।’

এর আগে পুতিন বলেছিলেন, রাশিয়া ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন কূটনীতির’ কাছে মাথা নত করবে না।

বৃহস্পতিবার  প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রাশিয়ার ৩৫ কূটনীতিককে বহিষ্কার করে যুক্তরাষ্ট্র। এ ঘটনার পর শোনা গিয়েছিল, ঠিক ৩৫ মার্কিন কূটনীতিককেও বহিষ্কার করবে মস্কো। কিন্তু শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রাশিয়া পাল্টা জবাব দেয়নি।

এই টানাপড়েনের বিষয়টি নিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্পও। তিনি পুতিনের প্রশংসা করে দেওয়া তাঁর টুইটটি গুরুত্ব দিয়ে  টুইটার প্রোফাইলের ওপরে পিন করে রাখেন। তবে টুইটে ‘দেরিতে’ শব্দটি দিয়ে তিনি কী বুঝিয়েছেন, তা বোঝা যায়নি বলে মন্তব্য করেছে বিবিসি।

এর আগে ডেমোক্রেটিকদের শিবির থেকে রাশিয়ান হ্যাকিংয়ের অভিযোগ ওঠার পরপরই ডোনাল্ড ট্রাম্প একে ‘হাস্যকর’ বলে মন্তব্য করেছিলেন।

অবশ্য পুতিনের কূটনীতিকদের বহিষ্কার না করার সিদ্ধান্তের বিষয়ে কথা বলার আগে ট্রাম্প বলেন, তিনি আগামী সপ্তাহে এ বিষয়ে মার্কিন বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে কথা বলবেন।

এ বিষয়ে ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ সহকারী কেলওয়াইনি কনওয়ে বৃহস্পতিবার বলেছিলেন, ‘এটি খুবই দুর্ভাগ্যজনক বিষয় হবে যদি রাজনৈতিক বিবেচনায় এটি (প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হ্যাকিংয়ের তদন্ত) করা হয়।’

 

 

কুইকনিউজবিডি.কম/তপন/৩১শে ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং/ দুপুর২:৪১