২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:১২

নারায়ণগঞ্জে বিএনপির মনোনয়ন পেলেন সাখাওয়াত

ডেস্ক নিউজঃ বহু জল্পনার পর নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

সাখাওয়াত হোসেন খান নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি। তিনি নারায়ণগঞ্জে আলোচিত সাত খুন মামলার আইনজীবী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এর আগে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীর নাম আজ সন্ধ্যায় ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছিল  বিএনপি।

সোমবার রাতে বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার তৃণমূল নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন খালেদা জিয়া। বৈঠক শেষ হয় প্রায় মধ্যরাতে।

বৈঠক শেষে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গণমাধ্যমকে বলেন, ‘দলের চেয়ারপারসন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া রাতে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে দলের তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। নারায়ণগঞ্জে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীর নাম মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।’

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ভোট গ্রহণ হবে আগামী ২২ ডিসেম্বর। এটি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের দ্বিতীয় নির্বাচন এবং দলীয়ভাবে এখানে এই প্রথমবারের মতো মেয়র পদে প্রার্থী দিচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলো।

এরই মধ্যে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেলিনা হায়াৎ আইভীকে মেয়র পদে মনোনয়ন দিয়েছে। এখানে আরো কয়েকটি রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে মেয়র পদে প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

২০১১ সালের ৫ মে নারায়ণগঞ্জ, সিদ্ধিরগঞ্জ ও কদমরসুল—এ তিনটি পৌরসভা বিলুপ্ত করে ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত হয় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন। একই বছর ৩০ অক্টোবর প্রথমবারের মতো সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী শামীম ওসমানকে পরাজিত করে সিটির প্রথম মেয়র নির্বাচিত হন সেলিনা হায়াৎ আইভী। তিনি বাংলাদেশের প্রথম নারী, যিনি সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে আইভী বিলুপ্ত নারায়ণগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন।

প্রথম সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বিএনপির সমর্থন নিয়ে মেয়র পদে প্রার্থী হন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সংস্থার (বিআরটিসি) সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার। তবে ভোট শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগে দলের হাইকমান্ডের নির্দেশে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান তৈমূর।

এবার শুরুর দিকে নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার কথা বললেও গত শনিবার দুপুরে নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমূর আলম খন্দকার মত পরিবর্তনের কথা জানান। তিনি বলেন, দল তাঁকে মনোনয়ন দিলে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে তিনি অংশ নেবেন। মনোনয়নের ব্যাপারে দলের তৃণমূল নেতাকর্মীরা কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে আছেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় আগামী ২৪ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই ও বাছাই করা হবে ২৬ ও ২৭ নভেম্বর। নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ সময় আগামী ৪ ডিসেম্বর।

 

 

 

 

কুইকনিউজবিডি.কম/আরিফ/ ২২ শে নভেম্বর, ২০১৬ ইং/দুপুর ১ঃ৩৫