১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:০৩

নেত্রকোনায় ছয় যুদ্ধাপরাধীর বিরুদ্ধে চুড়ান্ত তদন্তের প্রতিবেদন প্রকাশ

কুইকনিউজবিডি.কম, নিউজ ডেস্ক: ১৯৭১ সালের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগের মামলায় নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ছয়জনের বিরুদ্ধে তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা-গণহত্যা, অপহরণ, নির্যাতন, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগ, ধর্ষণসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের সাতটি অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে আটজন নিরীহ মানুষকে অপহরণের পর হত্যা, তিনটি বাড়ির মালামাল লুট, আটটি ঘরে অগ্নিসংযোগ ও একজনকে ধর্ষণের অভিযোগ। গতকাল বুধবার তদন্ত সংস্থার ধানমরি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ মামলার চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

আসামিরা হলেন, শেখ মো. আব্দুল মজিদ (৬৬), মো. আব্দুল খালেক তালুকদার (৬৭), মো. কবির খান (৭০), আব্দুর রহমান (৭০), আব্দুস সালাম বেগ (৬৮) ও নুরউদ্দিন ওরফে রদ্দিন (৭০)। এ মামলার মোট সাত আসামির অন্যজন আহাম্মদ আলী (৭৮) গ্রেপ্তারের পর মারা যাওয়ায় তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। ছয় আসামির মধ্যে গত বছর ১২ আগস্ট গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে আছেন আব্দুর রহমান। বাকি পাঁচজন পলাতক।

তদন্ত সংস্থার সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খান বলেন, প্রতিবেদনটি প্রসিকিউশনের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এর ভিত্তিতে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ তৈরি করে ট্রাইব্যুনালে দাখিল করবে প্রসিকিউশন।

আসামিদের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালের ২১ আগস্ট দুপুর ১টায় রাজাকার বাহিনী নিয়ে বাড়হা গ্রামের আব্দুল খালেককে গুলি করে হত্যার পর কংস নদীর পানিতে মরদেহ ভাসিয়ে দেওয়ার অভিযোগে মামলা হয়। ২০১৩ সালে শহীদ আব্দুল খালেকের ছোট ভাই মুক্তিযোদ্ধা আ. কাদির বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

 

তারিখ: ১৭-০৩-২০১৬/কুইকনিউজবিডি/রাকিব/ সময়:-