২৭শে অক্টোবর, ২০২০ ইং | ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৩৬

৭ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আ.লীগ সভাপতি গ্রেফতার

সাহেদ সাব্বির ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মতিগঞ্জ এলাকায় ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে(১২) জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আ.লীগ সভাপতির বিরুদ্ধে । এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে ওই স্কুল ছাত্রীর মা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত তমিজ উদ্দিন নয়নকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে। সে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ভাদাদিয়া গ্রামের চুনি মাঝি বাড়ির মৃত সৈয়দ আহম্মদের ছেলে তমিজ উদ্দিন নয়ন তার বাড়ির সামনে একটি ফার্নিচার দোকানের ব্যবসায়ী। নির্যাতিত ছাত্রীর বাবা অভিযুক্ত নয়নের অধীনে কাঠুরের কাজ করে।

গত ১অক্টোবর স্থানীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ওই ছাত্রী প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় নয়ন তার দোকানে নিয়ে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনাটি কাউকে জানালে তাকেও তার পিতাকে হত্যার হুমকি দেয় নয়ন। বিষয়টি নয়নের স্ত্রী স্বচক্ষে দেখে ফেললে তার মুখ বন্ধ করার জন্য নয়ন তাকে মারধরও করেন। স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ায় এক কান দুই কান হতে হতে বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। পরে বৃহস্পতিবার(৮অক্টোবর) রাত আটটার দিকে ওই স্কুল ছাত্রী তার পিতা-মাতার কাছে মুখ খুলে ঘটনার বর্ননা দেয়। বৃহস্পতিবার রাতেই ওই স্কুল ছাত্রীর মা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করে।

সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সোনাগাজী-দাগনভূঞা) সাইকুল আহমেদ ভূঞা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি তদন্ত মো. আবদুর রহিম সরকার জানান, এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদি হয়ে রাতেই তমিজ উদ্দিন নয়নকে একমাত্র  আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। নয়ন নির্যাতিত ছাত্রীর সম্পর্কে জেঠা হন।

কিউএনবি/আয়শা/৯ই অক্টোবর, ২০২০ ইং /সকাল ১০:৩৩

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন