২১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং | ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৩৯

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

 

ডেস্কনিউজঃ নওগাঁর মান্দায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছে এক স্কুলছাত্রী। অনশনরত স্কুলছাত্রী জি এস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং ভেবড়া গ্রামের আব্দুল আলী শেখের মেয়ে। অপরদিকে প্রেমিক আব্দুল খালেক (২২) গণেশপুর ইউনিয়নের ভেবড়া (করিগরপাড়া) গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে।

শনিবার সকাল থেকে প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করছে ওই স্কুলছাত্রী। প্রেমিকের সাথে বিয়ে না হলে আত্মহত্যা করবে বলেও জানায় সে। ফলে দুশ্চিন্তায় পড়েছে উভয় পরিবার।

অনশনরত কিশোরী জানান, তাদের বাড়িতে কাজ করার সুবাদে গত কয়েকবছর যাবৎ একই গ্রামের প্রতিবেশী চাচাতো ভাই আব্দুল খালেকের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু ওরা গরীব হওয়ায় প্রেমের সম্পর্ক বাবা এবং বড়ভাই মেনে নিতে চায় না। ওদের বাড়িতে এর আগেও একাধিকবার বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেওয়ার পরে ওই ছেলের সাথে বিয়ে দিবে বলে মিথ্যে আশ্বাস দিয়ে নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু পরবর্তীতে ওই ছেলের সাথে আর বিয়ে না দেওয়ায় বাধ্য হয়ে তাদের বাড়িতে অবস্থান নেয়।

স্থানীয় প্রতিবেশী আব্দুল মান্নান, মোয়াজ্জেম, আকরাম ও সাইদুর রহমানসহ অনেকে জানান, এই তরুণীকে কেউ জোরপূর্বক আনেনি। ও নিজের ইচ্ছায় আব্দুল খালেকের বাড়িতে এসে অবস্থান নিয়েছে। ওদের প্রেমের সম্পর্ক আজ নতুন না। সবাই জানে ওদের প্রেমের সম্পর্ক। কিন্তু ওরা গরীব হওয়ায় ওদের সম্পর্কের বড় বাধা।

ছেলের মা ময়না বলেন, আমরা অনেক গরীব মানুষ। তবুও মেয়েটি আমার ছেলের জন্য পাগল। আর এজন্য মেয়েটি আমার ছেলের সাথে বিয়ে হওয়ার জন্য ওর নিজের ইচ্ছায় শুক্রবার ভোররাতে আমাদের বাড়িতে অবস্থান নেয়। বিয়ে না হলে ও আর আমাদের বাড়ি থেকে যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। কিন্তু মেয়েটির বড় ভাই আমার ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে চাচ্ছে না। বরং মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসাতে বিভিন্নভাবে হুমকি অব্যাহত রেখেছে।

মান্দা থানার ওসি (তদন্ত) তারেকুর রহমান সরকার বলেন, এতদসংক্রান্ত বিষয়ে মেয়ের বাবা বাদি হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কিউএনবি/বিপুল/২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং/সন্ধ্যা ৭:৪৯

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন