২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৩৭

শেরপুরে শিশুর গলায় ছুরি ধরে মেয়ের বিয়ের গহনা ও টাকা লুটপাট বাড়ি ভাংচুর

 

আবু জাহের, শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরের নিশিন্দারা গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষরা সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ভোরে মেরাজুল ইসলামের মেয়ের বিয়ের গহনা, টাকা স্বর্ণালংকার লুটপাট ও বাড়ী ভাংচুর করেছে। জানা যায়, উপজেলার সীমাবাড়ী ইউনিয়নের নিশিন্দারা গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে মেরাজুল ইসলামের সাথে বাড়ির ৩৭ শতক জমি নিয়ে একই গ্রামের মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে জয়নাল আবেদীনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এই একপর্যায় মেরাজুলের অভিযোগের প্রেক্ষিতে শেরপুর থানা পুলিশ ও স্থানীয় মুরুব্বিরা গত সোমবার ওই জমির সীমানা নির্ধারণ করে দেয়া হয়। সেই অনুযায়ী মেরাজুল ঘর তোলেন। এদিকে তার মেয়ের শুক্রবার বিয়ের জন্য পূর্ব প্রস্তুতি হিসাবে জমি বিক্রি করে ২ লক্ষ টাকা ও ১ ভরি স্বর্ণালংকার তৈরি করে ঘরে রেখে দেন।

বিয়ে ভাঙ্গার জন্য জয়নাল আবেদীন ও তার ৪ ছেলে রোকন উদ্দিন, সেলিম, শামীম রেজা, মোখলেছের নেতৃত্বে আমিনুর, হযরত, কামাল, বিপ্লব, মজনু, বাবলু, সোহেল সহ প্রায় দেড় শতাধিক সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে হামলা করে বাড়ি ঘর ভাঙ্গচুর করে। মেরাজুলের ৯ বছরের শিশু সন্তান মাজেদুলের গলায় ছুরি ধরে জিম্মি করে বিয়ের জন্য রক্ষিত জমি বিক্রির এক লক্ষ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে চলে যায়। এ ব্যাপারে জয়নাল আবেদন ও তার ছেলে সেলিম রেজা ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, আমরা করিনি কে যেন করেছে এই লুটপাট। তবে ২০১১ সালে কোট থেকে আমরা রায় নিয়ে দখল অবমুক্ত করি। ৩ বছর ধরে আবার তারা জায়গা বেদখল করে ঘরবাড়ি করে আছে।এ বিষয়ে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে ব্যবস্তা নেয়া হবে।

কিউএনবি/অনিমা/১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং/সন্ধ্যা ৬:১৭

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন