৯ই আগস্ট, ২০২০ ইং | ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:০১

কোরবানির পর পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা

 

লাইফ ষ্টাইল ডেস্ক :  বছর ঘুরে চলে এসেছে কোরবানির ঈদ। এই ঈদ মানেই পশু কোরবানি। আর কোরবানির পর রাস্তায় রক্তের দাগ, বর্জ্য পদার্থ খুবই বিরক্তের কারণ হয়ে ওঠে। অনেক সময় বাসা থেকে কোরবানির দাগ দূর করতে বিরক্তি ধরে যায়। তাই কোরবানির পর ঘর-বাহির কীভাবে পরিষ্কার রাখবেন তা জেনে নিন।

কোরবানির পর ঘর পরিষ্কার করার কিছু টিপস-
ঘরের বাইরে
১) ঘরের বাইরে যে স্থানে কোরবানি দেওয়া হয়, সেই স্থানটি প্রচুর পরিমাণ পানি দিয়ে ঝাড়ু দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে।

২) গরম পানিতে অ্যান্টিসেপটিক লিকুইয়েড (ডেটল, স্যাভলন, ব্লিচিং পাউডার ইত্যাদি) মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

৩) পশুর মলমূত্র, রক্ত, আবর্জনা যেখানে-সেখানে না ফেলে গর্ত করে মাটি চাপা দিতে হবে অথবা পুড়িয়ে ফেলতে হবে।

৪) খোলা জায়গা (যেখানে পশু কোরবানি দেওয়া হয়) সেখানে পানি ঢেলে ধুয়ে ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দিতে হবে। এতে রক্তের গন্ধ এবং দাগ দুই কম হবে।

৫) কোরবানি শেষে হোগলার পাটি (যেখানে জবাই করার পর পশুর মাংস রাখা হয়) সেটি পুড়িয়ে ফেলা উচিত। না হলে এই হোগলা থেকে পরে মশার উপদ্রব হতে পারে।

৬) পশুর দেহ থেকে নাড়িভুঁড়ির উচ্ছিষ্ট বের করে যত্রতত্র ফেলে দিলে তা পচে মারাত্মক দুর্গন্ধ ছড়াবে এবং পরিবেশ দূষিত হবে। এইগুলো একটি গর্ত করে মাটি চাপা দিতে হবে অথবা পুড়িয়ে ফেলতে হবে।

ঘরের ভিতরে
৭) মাংস ঘরে আনার পর কাটা বাছার জন্য রান্নাঘরের বাইরে ডাইনিং রুম অনেকে ব্যবহার করেন। যেই জায়গায় মাংস কাটবেন সেই জায়গাটি ভালোমতো ধুয়ে মুছে প্লাস্টিকের শিট বা পাটি বিছিয়ে নিন। এতে মেঝে নোংরা কম হবে।

৮) মাংস কাটা হয়ে গেলে প্লাস্টিক উঠিয়ে নিয়ে ওই জায়গা প্রথমে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর গরম পানি এবং ডিটারজেন্ট একসাথে মিশিয়ে সেই পানি দিয়ে মেঝে পরিষ্কার করুন। দেখবেন রক্তের দাগ বা মাংসের আঠালো দাগ একদম গায়েব।

শরীর থেকে মাংসের দুর্গন্ধ দূর করার উপায়
মাংস নিয়ে কম বেশি সবাইকে কাজ করতে হয়। আর কাজ করতে যেয়ে হাতে মাংসের দুর্গন্ধ লেগে থাকে। সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার পরেও মাংসের গন্ধ যেতে চায় না। এই গন্ধ ঘরোয়া টুকিটাকি দিয়ে দূর করা সম্ভব। আসুন জেনে নেওয়া যাক হাত থেকে মাংসের দুর্গন্ধ দূর করার উপায়গুলো।

৯) লেবুর রস হাত থেকে মাংসের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করবে। এক টুকরো লেবু কেটে দুই হাতে ভালো করে ঘষুন। তারপর পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। মাংসের গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

১০) প্রাকৃতিক পরিষ্কারক হিসাবে বেকিং সোডার বেশ সুনাম রয়েছে। হাতের দুর্গন্ধ দূর করতেও এটি বেশ কার্যকর। এক চামচ বেকিং সোডা হাতে নিয়ে ভালো করে ঘষুন। তারপর পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন।

কাপড়ে রক্তের দাগ লাগলে
১১) ভিনেগার কাপড় থেকে খুব দ্রুত ও সহজে দাগ দূর করে থাকে। রক্তের দাগ লাগা জায়গাটিতে ভিনেগার স্প্রে করে নিন। এবার হালকাভাবে কিছুক্ষণ ঘষুন। ৫-১০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রথম ঘষাতে দাগ দূর না হলে আবার ভিনেগার দিয়ে ঘষুন। কাপড়ে রক্তের দাগ লাগার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দাগ পরিষ্কার করে নিতে হবে। দেরী হয়ে গেলে স্থায়ীভাবে কাপড়ে দাগ বসে যেতে পারে।

১২) পানি আর ট্যালকম পাউডার মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এইবার এই পেস্টটি রক্তের দাগের ওপর লাগান। একটি ব্রাশ দিয়ে আস্তে আস্তে ঘষুন। কিছুক্ষন পর দেখবেন দাগ দূর হয়ে গেছে।

১৩) রক্তের দাগ দূর করার আরো একটি সহজ উপায় হলো লবণ পানি। ঠাণ্ডা পানিতে লবণ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণে রক্তের দাগ লেগে থাকা কাপড়টি ভিজিয়ে রাখুন ৩-৪ ঘন্টা। তারপর ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

কিউএনবি/অনিমা/১ আগস্ট , ২০২০ ইং/দুপুর ১২:২২

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন