৯ই আগস্ট, ২০২০ ইং | ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:০৬

ভুয়া প্রতিষ্ঠানের নামে নিম্নমানের মাস্ক ও পিপিই সরবরাহ করেছিল শাহেদ

 

ডেস্কনিউজঃ রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. শাহেদ ওরফে শাহেদ করিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রতারণার নতুন নতুন তথ্য পাচ্ছে গোয়েন্দা পুলিশ। এমন আরো একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে শাহেদ। পুলিশের ভাষ্যমতে, সরকারকে নিম্নমানের মাস্ক ও পিপিই সরবরাহ করেছিল শাহেদ। আলবার্ট গ্লোবাল গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান থেকে এসব সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহ করা হয়। তবে এই নামে তার কোনো পোশাক কারখানা নেই। ফেসবুক পেজ খুলে এই প্রতারণা শুরু করেছিল সে। শনিবার দুপুরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আবদুল বাতেন এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আলবার্ট গ্লোবাল গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি লিমিটেড নামে একটি ফেসবুক পেজ খুলেছিল শাহেদ। আসলে বাস্তবে এই নামে কোনও কারখানা বা প্রতিষ্ঠান নেই।

শাহেদের এই প্রতিষ্ঠান করোনা সংক্রমণের প্রথমদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে নিম্নমানের মাস্ক ও পিপিই সরবরাহ করে। এই প্রতিষ্ঠানের কথা বলে কাজ নিয়ে শাহেদ বিভিন্ন কারখানায় সাবকন্ট্রাক্টে মাস্ক ও পিপিই বানানোর কাজ দিতো। সেখান থেকে এসব সুরক্ষা সামগ্রী তৈরি করে সরবরাহ করতো।

তিনি জানান, শাহেদের প্রতারণার নতুন নতুন তথ্য পাচ্ছে গোয়েন্দা পুলিশ। তদন্ত চলছে। আরও অনেকেই প্রতারিত হওয়ার অভিযোগ নিয়ে আসছেন। তিনি বলেন, শাহেদ কীভাবে এতো টাকা-পয়সার মালিক হলো আমরা তা খতিয়ে দেখছি। আমাদের পাশাপাশি অন্য সংস্থাও তদন্ত করে দেখছে। আমরা সবকিছুই তদন্ত করছি।

 

বিপুল /১৮ই জুলাই, ২০২০ ইং/সন্ধ্যা ৬:০৮

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন