২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১:৪৪

কটিয়াদীতে পাগলা কুকুরের আক্রমনে শিশু শিক্ষার্থীসহ আহত ২০

মোঃ ছিদ্দিক মিয়া,কটিয়াদী(কিশোরগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ কটিয়াদী উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের আনন্দবাজার এলাকায় পাগলা কুকুরের আক্রমনে ১০ শিশু শিক্ষার্থীসহ ২০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহত কয়েকজনকে কটিয়াদী সদর হাসপাতাল ও স্থানীয় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। আহতের মধ্যে মোঃ শাকিল নামের এক শিশুর অবস্থা গুরুতর।

কটিয়াদী ডিগ্রি কলেজে একাদশ প্রথম বর্ষের ছাত্র মোঃ সোহেল জানায়, সকালে ঘুম থেকে উঠে হাত মুখধোঁয়ার সময় একটি পাগলা কুকুর এসে শিশু শ্রেণীর শিক্ষার্থী শাকিলের (৭) শরীরের ৫টি স্থানে কামড় দেয়। শাকিলের মাথায় ২টি, হাতে ১টি ও কোমরে ২টিসহ মোট ৫টি ক্ষতের চিহ্ন পাওয়া যায়। শাকিল স্থানীয় দিনমজুর নিজাম উদ্দিনের ছেলে ।

অন্যদিকে জালালপুর ইউনিয়নের ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের  আরেকটি পাগলা কুকুরের একের পর এক আক্রমনে ১৯ জন লোক গুরুতর আহত হয়েছে। যাদের মধ্যে সজিব (১০) ৩য় শ্রেণীর ছাত্র, ফমি (১২) ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী, পূর্ণিমা আক্তার (১১), মোঃ শরিফ (১১), বিলকিস আক্তার(২৫) রয়েছেন। স্থানীয়রা জানান সকালে মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে কুকুরের আক্রমনের শিকার হয় একজন মুসল্লি। এলাকাবাসী দ্বিতীয় কুকুরটিকে প্রাণভয়ে মেরে পেলে। স্থানীয়রা আরো জানান হঠাৎ কুকুরের এই কামড়ে জনমনে আতংক সৃষ্টি করছে।

শাকিলকে প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান তার চিকিৎসার খরচ চালাতে ৫ হাজার টাকার বেশি খরচ হতে পারে। খরচ চালানো পরিবারের পক্ষ্যে মোটেই সম্ভব না। অসহায় শাকিলের পরিবারের আর্থিক সংকটের কারণে তার চিকিৎসার খরচ চালানো বর্তমানে অসম্ভব।

কুইকনিউজবিডি.কম/জুয়েল /২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং/ সন্ধ্যা ৬:০৮