৭ই জুন, ২০২০ ইং | ২৪শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৩৮

নববধূকে লাল শাড়ি পরানো হয় কেন জানেন?

 

লাইফস্টাইল ডেস্ক :  উপমহাদেশে বিয়ের পিঁড়িতে বসার সময় কনের জন্য লাল শাড়ি যেন অপরিহার্য। কনে থেকে শুরু করে কনে-বরের বাড়ির লোকজনেরাও এই রংটিকেই প্রথম পছন্দের তালিকায় রাখেন। যুগ যুগ ধরেই এই রংটিকেই বিয়ের শাড়ির ক্ষেত্রে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়। তবে অন্য রঙের শাড়ি যে বিয়েতে একেবারেই ব্যবহার হয় না তা নয়, তবে সংখ্যায় খুবই কম। 

বিয়েতে কেন লাল রং বেছে নেওয়া হয় তা হয়তো অনেকেই জানেন না। এবার তা জেনে নিন।

* প্রথমেই বলা যায় যে, লাল রঙের মধ্যে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করার ক্ষমতা থাকে প্রবল। যে কোনও রঙের তুলনায় লাল রঙে একটু বেশি চমক থাকে।

* এ ছাড়া লাল রং শুভ রং এবং লাল রংকে বেশ কিছু জিনিসের প্রতীক হিসেবে মানা হয়। 

* লাল রঙের মধ্যে একটা বিশেষ শক্তি অন্তর্নিহিত থাকে। লাল রং‌ আমাদের ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে।

* আবার লাল রংকে বিপ্লবের প্রতীক হিসেবেও মানা হয়।

* লাল রং ভালবাসা ও যৌবনের প্রতীক। 

* যে কোনও শুভ কাজে লাল রং ব্যবহার করা হয়। যেহেতু বিয়ের সঙ্গে ভালবাসার সম্পর্কটা ওতপ্রোতভাবে জড়িত রয়েছে।তাই বিয়ের কনেকে লাল শাড়ি পরানো হয়। এতে নববধূকে অত্যন্ত সুন্দরী ও মোহময়ী করে তোলে।

বিয়েতে অন্য কারও চেয়ে কনের ওপরই আলোটা থাকে বেশি। সবার আগ্রহ থাকে কনে দেখার। আর লাল রঙের শাড়িতে কনে হয়ে উঠেন তুলনামূলকভাবে বেশি আকর্ষণীয়। তাই সুতি, জামদানি, তাঁত, মসলিনের মধ্যে থেকে কনে কিংবা তার পরিবার পছন্দের লাল শাড়িটি বেছে নেন। তবে লাল বেনারসী শাড়ির কদর চিরন্তন। এটি এখনো পছন্দের শীর্ষ স্থান দখল করে আছে।

কিউএনবি/অনিমা/২২শে মে, ২০২০ ইং/সকাল ১১:৪০

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন