৩০শে মে, ২০২০ ইং | ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:১০

ঈদ স্পেশাল গরু-খাসি-মুরগির আইটেম

 

লাইফ ষ্টাইল ডেস্ক : এবারের ঈদ সব ঈদের চেয়ে আলাদা করে দিয়েছে মহামারি করোনা। কোথাও নেই সেই ঈদের আনন্দ-উৎসবের সেই চেনা রূপ। তারপরও ঈদ খুব কাছেই চলে এসেছে। কিছু প্রস্তুতি তো নিতেই হচ্ছে। অন্তত ঘরে রান্নাটা ঠিকঠাক করতেই হবে। এবার কেউ কোথাও যাওয়া হবে না, তাই নিজের ঘরেই ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে নজর দিন, রান্নার আইটেমে। 

ঈদের খাবারের বড় অংশ জুড়ে থাকে মাংসের নানা পদ। আপনাদের সুবিধার জন্য আজ রইল বিশেষ কয়েকটি গরু-খাসি ও মুরগির মাংসের রেসিপি। 

আস্ত চিকেন মোসাল্লাম 
উপকরণ 
এক কেজি ওজনের আস্ত মুরগি ১টি, পেঁয়াজ বাটা ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৫টি, রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ, আদা বাটা ৩ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া ২ চা চামচ, সয়াবিন তেল বা ঘি ১ কাপ, ঘি ৩ টেবিল চামচ, দই আধা কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, কাজু ও পোস্ত বাদাম বাটা ৩ টেবিল চামচ, কিশমিশ বাটা ২ টেবিল চামচ, কেওড়া পানি ১ চা চামচ, আলু সেদ্ধ ২টি, ডিম সেদ্ধ ২টি, কাজু ও পেস্তা কুচি মিলিয়ে একসঙ্গে ৩ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালী
মুরগির ভেতরটা ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। সেদ্ধ ডিম ও আলু সামান্য লবণ দিয়ে ভেজে নিন। 

এবার ডিম ও আলু মুরগির পেটের ভেতর ঢুকিয়ে হাত, পা ও পেট ভালো করে সেলাই করে হালকা ভেজে নিন। ওই তেলে সব মসলা কষিয়ে নিন। মসলা কষানো হলে মুরগি দিন। অল্প অল্প করে দই দিন। 
মুরগি সেদ্ধ হয়ে মশলা মাখা মাখা হয়ে এলে কাজু ও পেস্তা কুচি, পেঁয়াজ বেরেস্তা, কাঁচা মরিচ ও কেওড়া দিয়ে নামিয়ে নিন।

স্টেক

গরুর মাংস স্টেক
উপকরণ 

হাড় ছাড়া গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম, আদা পেস্ট আধা চা চামচ, হট টমেটো সস ১/২ কাপ, গোল মরিচ গুঁড়া সামান্য, রসুন পেস্ট আধা চা চামচ, জিরার গুঁড়া সামান্য স্টেক স্পাইস পরিমাণ মতো, অলিভ অয়েল ২ টেবিল চামচ, লবণ ও মরিচ-স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালী
মাংস পছন্দমতো কেটে ধুয়ে নিন। একটি পাত্রে সব উপকরণ নিয়ে ভালোভাবে পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার স্টেকগুলো মসলা মেখে মেরিনেট করে তিন থেকে চার ঘণ্টার জন্য ফ্রিজে রেখে দিন। গ্রিলে স্টেক দিয়ে মাঝারি তাপমাত্রায় গ্রিল করুন। ওভেনেও গ্রিল করে নিতে পারেন।

লক্ষ্য রাখবেন স্টেক যেন খুব শক্ত না হয়ে যায়। এরপর স্টেকের ওপর গ্রেভি দিয়ে আপনার পছন্দমতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার স্টেক।

মাটন কোরমা

মাটন কোরমা
উপকরণ 
খাসির মাংস দুই কেজি, পেঁয়াজবাটা আধা কাপ, রসুনবাটা দুই চা-চামচ, আদাবাটা এক টেবিল-চামচ, দারুচিনি বড় চার টুকরো, তেজপাতা দু’টি, লবণ দুই চা-চামচ, ঘি আধা কাপ, কাঁচা মরিচ আটটি, কেওড়া দুই টেবিল-চামচ, তরল দুধ দুই টেবিল-চামচ, এলাচি চারটি, টক দই আধা কাপ, চিনি চার চা-চামচ, দেশি পেঁয়াজকুচি আধ কাপ, লেবুর রস এক টেবিল-চামচ, জাফরান আধা চা-চামচ, (দুই টেবিল-চামচ তরল দুধে ভিজিয়ে ঢেকে রাখুন)।

যেভাবে করবেন 
মাংস টুকরো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। সব বাটা মসলা, গরম মসলা, টক দই, সিকি কাপ ঘি ও লবণ দিয়ে মেখে হাত ধোয়া পানি দিয়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে চুলায় বসিয়ে দিন। মাংস সেদ্ধ না হলে আরও পানি দিন।

পানি অর্ধেক টেনে গেলে কেওড়া ও কাঁচা মরিচ দিয়ে আবার হালকা নেড়ে ঢেকে দিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পাশের চুলায় বাকি ঘি গরম করে পেঁয়াজকুচি সোনালি রঙ করে ভেজে মাংসের হাঁড়িতে দিয়ে বাগার দিন। তারপর চিনি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। পাঁচ মিনিট পর ঢাকনা খুলে দুধে ভেজানো জাফরান ওপর থেকে ছিটিয়ে দিয়ে আরও পাঁচ মিনিট ঢেকে রাখুন। তারপর ঢাকনা খুলে লেবুর রস দিয়ে হালকা নেড়ে আঁচ একেবারে কমিয়ে তাওয়ার ওপর ঢেকে প্রায় ২০ মিনিট থেকে আধা ঘণ্টার মতো দমে রাখুন।

যখন কোরমা মাখা মাখা হয়ে বাদামি রং হবে এবং মসলা থেকে তেল ছাড়া শুরু করবে, তখন নামিয়ে পরিবেশন করুন।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/২০শে মে, ২০২০ ইং/সন্ধ্যা ৬:১৫

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন