২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৪৯

র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইউপি সদস্য নিহত

ডেস্ক নিউজ: চুয়াডাঙ্গায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সদর উপজেলার আলোকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য রাকিবুল ইসলাম রাকিব নিহত হয়েছেন।

গতকাল শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার গোবিন্দহুদা গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত রাকিব চুয়াডাঙ্গা ভি জে স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র মাহফুজ আলম সজীব অপহরণ ও হত্যা মামলার প্রধান আসামি।

বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে একটি শাটারগান, দুটি গুলি ও একটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয় বলেও দাবি করে র‍্যাব।

র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ কোম্পানি কমান্ডার মেজর মনির আহমেদ জানান, গতকাল গভীর রাতে গোবিন্দহুদা গ্রামে টহলে গেলে দুর্বৃত্তরা টহলদলকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় র‌্যাব সদস্যরা পাল্টা গুলি ছুড়লে হামলাকারীরা পিছু হটে। একপর্যায়ে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে উদ্ধার করে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

মেজর মনির আহমেদ আরো জানান, এ ঘটনার পর নিহত ব্যক্তি চুয়াডাঙ্গা ভি জে স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র মাহফুজ আলম সজীব অপহরণ ও হত্যা মামলার প্রধান আসামি রাকিব বলে চিহ্নিত করেন দামুড়হুদা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) একরামুল হক।

গত ২৯ জুলাই দামুড়হুদা ব্রিজ মোড় এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে সজীবকে স্থানীয় বৃক্ষমেলার মাঠ থেকে অপহরণ করা হয়। অপহরণের প্রায় এক মাস পর র‌্যাব সদস্যরা চুয়াডাঙ্গা সিঅ্যান্ডবি পাড়ার একটি চার্জার লাইট কারখানার সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে সজীবের গলিত লাশ উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় সজীবের মামা আবদুল হালিম বাদী হয়ে দামুড়হুদা মডেল থানায় রাকিব মেম্বারসহ ছয়জনের নামে অপহরণ ও হত্যা মামলা দায়ের করেন।

কুইকনিউজবিডি.কম/জিয়া /১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং/ সকাল ১১:০১