১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং | ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৬:৫২

মোদির সাক্ষাৎ চেয়ে ভালোবাসা দিবসে প্রেমময় বিক্ষোভ

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাশ হওয়ার পর থেকেই দিল্লির শাহিনবাগে বিক্ষোভ করে আসছেন হাজার হাজার মানুষ । এ নিয়ে বিধানসভা নির্বাচনে হারও হয়েছে বিজেপির। এতে সন্তুষ্ট নয় শাহিনবাগের বিদ্রোহীরা, আন্দোলন চালিয়ে যেতে চান তারা। তবে আপাতত তাদের লক্ষ্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ। বসতে চান ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায়। আর তা না হলেও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে। শুক্রবার ভালোবাসা দিবসেও (ভ্যালেন্টাইন্স ডে) একটি ব্যতিক্রমী আন্দোলন চালিয়েছেন তারা। খবরটি প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়াটাইমস(আইটি) ।

ধারাবাহিক আন্দোলন থেকে বেরিয়ে, গোলাপ ফুল, ভ্যালেন্টাইনস ডে গ্রিটিংস কার্ড, টেডি বিয়ার এবং সঙ্গে রোম্যান্টিক মিউজিক আর থার্মোকলের হার্ট তৈরি করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আলোচনায় বসতে আহ্বান জানিয়েছেন তারা। কে বলবে এখানে গত ৬৮দিন ধরে এই মোদির বিরুদ্ধেই বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন স্থানীয়রা! ব্যতিক্রমী বিক্ষোভে পুরোপুরি প্রেমময় শাহিনবাগ। এ দিয়ে বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, হিংসার পথে নয় বরং ভালবাসার পথেই সিএএ’র প্রতিবাদ করতে চান তারা। সংবাদ সংস্থা এএনআই এ বিষয়ে একটি টুইটবার্তা প্রকাশ করেছে।

মোদির সাক্ষাৎ চেয়ে ভালোবাসা দিবসে প্রেমময় বিক্ষোভ

শাহিনবাগবাসী প্রধানমন্ত্রী মোদির প্রতি আবেদন, আমাদের কাছে আসুন। কথা বলুন।আপনার জন্য একটা ‘সারপ্রাইজ গিফ’ট আছে। সেটা গ্রহণ করুন। মোদিকে আমন্ত্রণ জানাতে, একদিকে যেমন বিক্ষোভস্থল সুন্দর করে সাজিয়ে তোলা হয়েছে, অন্যদিকে তেমনি বাঁধা হয়েছে প্রেমের গান।তবে, সারপ্রাইজ গিফটি কী? তা খোলসা করে বলেনি শাহিনবাগবাসী।

শাহীনবাগের প্রথম আন্দোলনকারী সৈয়দ তাসির আহমেদ সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি বা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বা অন্য যে কেউই হোক না কেন, তারা এসে আমাদের সাথে কথা বলতে পারে। যদি তারা আমাদের বোঝাতে পারেন যে যা ঘটছে তা সংবিধানের বিরোধী নয়, আমরা এই বিক্ষোভ থেকে সরে যাবো।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১৪ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং /সন্ধ্যা ৬:২৭

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন