২রা অক্টোবর, ২০২০ ইং | ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | রাত ২:২৬

দেশসেরা গল্পকারদের সেরা গল্পকার লালমনিরহাটের শুভ্র শোভন

জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না,লালমনিরহাট প্রতিনিধি : “কাঁটা তারের বেড়া” গল্প লিখে ও বলে দেশসেরা গল্পকারদের সেরা গল্পকার হয়েছেন লালমনিরহাটের শুভ্র শোভন রায়। দেশসেরা ৩০ জন গল্পকারদের মধ্যে প্রথম হয়েছেন তিনি। তার হাতে তুলে দেয়া হয় দেশসেরা গল্পকারের সনদ ও ক্রেস্ট।বাংলাভাষার একমাত্র গল্প বিষয়ক পত্রিকা “গল্পকার” আয়োজিত অনুষ্ঠানে শনিবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান ভবনের মুজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে তার হাতে এ সনদ ও ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়।  

দেশসেরা গল্পকারদের সেরা শুভ্র শোভন রায় (২৬) লালমনিরহাট শহরের থানাপাড়া এলাকার নিশী কান্ত রায় ও পদ্ম রানী রায়ের একমাত্র ছেলে। তিনি রংপুর কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে অনার্স-মাস্টার্স শেষ করেছেন ২০১৭ সালে।সীমান্তে ফেলানী হত্যার ঘটনাটি আমাকে “কাঁটা তারের বেড়া” শিরোনামে গল্প লিখতে অনুপ্রেরনা যোগায়। আর আমি বিবেকের তাড়নায় বাস্তবতার নিরীকে এই গল্পটি লিখি এমনটি জানালো দেশেসেরা গল্পকাদের সেরা গল্পকার শুভ্র শোভন রায়।

“সীমান্তের ঘটনা গুলো সত্যিই পীড়া দেয়। অনেক মানুষ না বুঝে অনেকে দারিদ্রতার কষাঘাতে বাধ্য হয় সীমান্তে যেতে। অনেকে বিদায় নেন চিরদিনের জন্য। আবার অনেকে পঙ্গু হয়ে সারাজীবন যন্ত্রনা ভোগ করে থাকেন এমনটি জানিয়ে তিনি বলেন সীমান্ত নিয়ে আরো কিছু গল্প লেখার পরিকল্পনা রয়েছে তার। “আসলে আমি একজন পাঠক। লেখালেখির চেষ্টা করছি মাত্র। অবশ্যই একজন প্রতিষ্ঠিত গল্পকার ও লেখক হতে চাই বলে তিনি জানান।

শোভনের বাবা নিশীকান্ত রায় জানান, সত্যিই তিনি গর্বিত। তার ছেলে দেশসেরা গল্পকারদের সেরা গল্পকারের খ্যাতি পেয়েছে এটা অত্যান্ত আনন্দের। ছেলের লেখায় বাস্তবতার স্বরুপ রয়েছে আর তার লেখা হৃদয়স্পর্শী লেখা।

কিউএনবি/অনিমা/১২ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং/বিকাল ৫:০৮

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন