১৫ই জুলাই, ২০২০ ইং | ৩১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৫৯

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়

 

ডেস্ক নিউজ : দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় রেকর্ড করা হয়েছে। তীব্র শীতে বেশি ভোগান্তির শিকার হচ্ছে ছিন্নমূল ও খেটে খাওয়া মানুষ।  বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৭.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  বুধবার চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ১১.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে কয়েকদিন ধরে। হিমেল বাতাসের কারণে প্রচণ্ড শীত অনুভূত হচ্ছে জনজীবনে।

এ দিকে রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ ও কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, যশোর অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা বিস্তার লাভ করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।  আবহাওয়াবিদ মো. মনোয়ার হোসেন বাসসকে বলেন, রাত ও দিনের তাপমাত্রার ব্যবধান কমে আসায় ঢাকায় একটু বেশি শীত অনুভূত হচ্ছে। তবে ঢাকায় শৈত্যপ্রবাহের কোনো প্রভাব নেই। মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে ঢাকার বাইরে। আজ ঢাকায় ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বিরাজ করছে।

বেশি ভোগান্তির শিকার হচ্ছে ছিন্নমূল ও খেটে খাওয়া মানুষ। মানুষ শীতের কারণে কাজ ছাড়া ঘরের বাইরে কম বের হচ্ছে। মানুষ শীত থেকে রক্ষা পেতে খড়কুটো, পাতা-বিচালি জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করছে।  শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ছিন্নমূল মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার রাতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার ফার্মপাড়ার রেল বস্তিতে কম্বল বিতরণ করা হয়।  জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বস্তিতে ২ শতাধিক দরিদ্র মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।  কম্বল বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোহাম্মদ ইয়াহইয়া খান, এনডিসি সিব্বির আহমেদসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং /রাত ৮:১১

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন