১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৩০

ওয়ার্নারকে বরণ করতে যাচ্ছিলাম, তখনই শুনি ইনিংস শেষ : লারা

 

স্পোর্টস ডেস্ক : টিম পেইন যদি আরেকটু পরে ইনিংসটা ঘোষণা করতেন, তাহলে হয়তো ক্যারিবীয় কিংবদন্তি ব্রায়ান লারার ব্যক্তিগত ৪০০ রানের রেকর্ড ভেঙে দিতেন ডেভিড ওয়ার্নার। সব সময় কি আর সেই মহাকাব্যিক ইনিংসের রেকর্ড ভাঙার সৌভাগ্য আসে? কিন্তু বাস্তবতা এটাই। পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ সমাপ্ত টেস্টের প্রথম ইনিংসে ওয়ার্নার খেলেছিলেন অপরাজিত ৩৩৫* রানের মহাকাব্যিক ইনিংস। লারার ৬৫ রান আগেই থেমে যেতে বাধ্য হন তিনি। তবে টিম পেইনের এই সিদ্ধান্তে বিস্মিত লারা।

ক্যারিবীয় কিংবদন্তি বলেন, ‘ও যখন স্যার ডন ব্র্যাডম্যানকে পেছনে ফেলল, আমি ধরে নিয়েছিলাম সে আমার রেকর্ড ভাঙছে। ভালো লাগছিল তখন। তার ইনিংস শেষে মাঠে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছিলাম আমি। আমি ধারাভাষ্যকারদের বলতে শুনছিলাম, সে ম্যাথু হেইডেনের ৩৮০ রান ছাড়াতে পারবে কি না। তবে আমার মনে হচ্ছিল সে যদি একবার হেইডেনেরটা পেরোতে পারে, তাহলে আমার রেকর্ডটাও ভাঙতে পারবে। আমি এখনো মনে করি ওয়ার্নার তার ক্যারিয়ারে এই রেকর্ড ভাঙার আরও সুযোগ পাবে। ও অনেক আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়।’

অ্যাডিলেডে দিবা-রাত্রির ওই টেস্টে ওয়ার্নার যখন পাকিস্তানি বোলারদের দুরমুশ করছিলেন, তখন ব্যাবসায়িক কাজে ওই শহরেই ছিলেন ব্রায়ান লারা। হঠাৎ জানতে পারেন যে, ওয়ার্নার তার রেকর্ড ভেঙে দিতে যাচ্ছেন। এ নিয়ে মোটেও হীনমন্যতায় ভোগেননি ক্যারিবিয়ান রাজপুত্র। বরং বেশ খুশি হয়েছিলেন। রেকর্ড যার পায়ের নিচে গড়াগড়ি খেত, তিনি কেন হীনমন্যতায় ভূগবেন? খবর শুনেই তিনি অ্যাডিলেড ওভালের উদ্দেশ্য রওনা দেওয়ার প্রস্তুতি নেন। উদ্দেশ্য ওয়ার্নারকে বরণ করে নেবেন। কিন্তু তখনই টিম পেইন ইনিংস ঘোষণা দিয়ে দেন!

ক্যারিবীয় কিংবদন্তি, ‘আমি আশা করেছিলাম তারা আমাকে খুঁজে বের করে মাঠে নিয়ে যাবে। আমি আশা করেছিলাম ওয়ার্নার এই রেকর্ড করার সুযোগ পাবে। সোবার্সের মতো ওয়ার্নারকে অভিনন্দন জানাতে পারলে ব্যাপারটা বেশ হতো। রেকর্ড হয়ই ভাঙার জন্য। ওয়ার্নারের মতো আক্রমণাত্মক মানসিকতার খেলোয়াড়রা যদি সেটা ভাঙে, তাহলে আরও চমৎকার লাগে। বিনোদন দেয়। অ্যাডিলেডে থাকায় আমি ওকে শুভেচ্ছা জানানোর সুযোগ পেয়েছিলাম, অন্তত মাঠে না গেলেও এই সুযোগে তার সঙ্গে দেখা হতে পারত।’ উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৭৫ রান করে তখনকার রেকর্ডধারী কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান স্যার গ্যারি সোবার্সের অপরাজিত ৩৬৫ রানের রেকর্ডকে পেছনে ফেলেন লারা। তখন গ্যারি সোবার্স বার্বাডোজের মাঠে নেমে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন ।উত্তরসূরিকে। সেই লারাও হয়তো ভেবেছিলেন, একইভাবে ডেভিড ওয়ার্নারকে অভিনন্দন জানাবেন। কিন্তু টিম পেইন লারাকে এভাবে ‘পেইন’ দেবেন, সেটা কে জানত? তবে আজ না পারলেও ওয়ার্নারের পক্ষে আবারও এমন ইনিংস খেলা সম্ভব বলে মনে করছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই মহাতারকা।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/২রা ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং /বিকাল ৩:৫৬

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন