১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৩৩

তাহেরপুরে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দূর্গোৎসব

 

আঃ আলিম সরদার, রাজশাহী প্রতিনিধি : প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। আজ মঙ্গলবার বিকাল থেকেই তাহেরপুর বারানয় নদীতে প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া শুরু হয় এবং সন্ধ্যা পর্যন্ত তা চলে।  এর আগে মন্ডপগুলোতে চলে সিঁদুর খেলা আর আনন্দ-উৎসব। চলে মিষ্টিমুখ, ছবি তোলা আর ঢাকের তালে তালে নাচ-গান।  মঙ্গলবার বিকাল থেকেই বিভিন্ন মন্ডপ থেকে প্রতিমা নিয়ে বের করা হয় বিজয় শোভা যাত্রা। শঙ্খ আর উলুধ্বনি, খোল-করতাল-ঢাকঢোলের সনাতনী বাজনার সঙ্গে দেবী-বন্দনার গানের মধ্য দিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ এই শোভাযাত্রায় অংশ নেন। শোভা যাত্রা শেষে হাজির হয় নদের তীরে। সেখানে প্রতিমা নৌকায় তুলে কিছুক্ষণ চলে উৎসব।

এরপর একে একে প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয় বড়াল নদে। তবে কয়েকটি প্রতিমা পুকুরেও বিসর্জন দেওয়া হয়েছে। এবছর তাহেরপুর পৌরসভার ৯টি মন্ডপে দুর্গা পূজা উদযাপিত হয়। নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মন্ডপে মন্ডপে প্রথম দিন থেকেই বিপুলসংখ্যক পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়। প্রতিমা বিসর্জন দেখতে নদের পাড়ে হাজারো মানুষ হাজির হন।  এদিকে মহাষষ্ঠী থেকে নবমী পর্যন্ত বাগাতিপাড়ায় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন, তাহেরপুর পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আবুল কালাম আজাদ।  প্রতিবারের মতো মহাষষ্ঠী, মহাসপ্তমী, মহাষ্টমী ও মহানবমীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের হাজার হাজার নারী-পুরুষ ধর্মীয় নানা আচার-অনুষ্ঠান পালন করেছেন। পঞ্জিকামতে, দেবী দুর্গা এবার ঘোটকে( ঘোড়ায়) চড়ে মর্ত্যলোকে এসেছিলেন এবং ঘোড়ায় চড়েই স্বর্গালোকে বিদায় নেন।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/৮ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং /সন্ধ্যা ৬:৪৭