১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:১২

তারেকের কাছে প্রতি মাসে কোটি টাকা পাঠাতেন ক্যাসিনো সেলিম

 

ডেস্ক নিউজ : অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসায় রিমান্ডে থাকা বিসিবির পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়ার ডান হাত ছিলেন সেলিম প্রধান। তার হাত ধরেই মোহামেডান ক্লাবের সহসভাপতি হন তিনি। দায়িত্ব পালন করেন লোকমানের ক্যাশিয়ার হিসেবে।

লোকমানের হাত ধরেই রমরমা ক্যাসিনো ব্যবসা চালু করেন সেলিম প্রধান। শুরু করেন অনলাইনভিত্তিক ক্যাসিনো ব্যবসা। যা থেকে কোটি কোটি টাকা তিনি বিদেশে পাচার করতেন। আর এ টাকার বড় একটা অংশ যেত বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দরগায়।

জানা গেছে, তারেক রহমানের সঙ্গে বেশ ঘনিষ্টতা রয়েছে সেলিমের। ক্যাসিনো ব্যবসার পাশাপাশি অনৈতিক ও অবৈধ কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন তিনি। তারেকের নৈশ পার্টিতে সুন্দরী নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চত করতেন সেলিম। এছাড়া বিউটি পার্লারে যেসব ভিআইপিদের আনাগোনা ছিল, তাদের মনোরঞ্জনের জন্য সেলিম ইউরোপিয়ান দেশগুলো থেকে তরুণীদের নিয়ে আসতো বলে গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে।

আটক লোকমানের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) অনলাইনে ক্যাসিনো ব্যবসার মূল হোতাকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে করে গোপনে দেশ ছাড়ছিলেন সেলিম। যাত্রীবাহী বিমানটি ছাড়ার আগ মূর্হুতে থাকে আটক করা হয়।

জানা গেছে, অনালাইনে কয়েন বিক্রি করে ক্যাসিনো ব্যবসা চালাতেন সেলিম। এ ব্যবসার জন্য প্রধানগ্রুপ নামে একটি ওয়েবসাইট রয়েছে। যেখানে ২০১৮ সালের ৭ ডিসেম্বর লাইভ ক্যাসিনো মার্কেট পি২৪ লিমিটেড নামের গেমিং কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করা হয় বলে উল্লেখ আছে।

ওয়েবসাইটে বাংলাদেশ অফিসের ঠিকানা ব্যবহার করা হয়েছে, গুলশান-২ এর ৯৯ নম্বর রোডের ১১/এ। এখানে রয়েছে পি২৪ এর অফিস। আর কর্পোরেট অফিসের ঠিকানা- ডি-১ মমতাজ ভিশন, গুলশান-২ এর ৯৯ নম্বর রোডে ১১/এ ব্যবহার করা হয়েছে। বিদেশি ঠিকানা দেয়া আছে, ১৬৫/৯৬ মো ১০, সুরাসাক, শ্রী রাখা, চনবুন থাইল্যান্ড, ২০১১০।

সূত্র জানায়, সেলিমের পুরো পরিবার বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তার বাবার নাম হান্নান প্রধান। থাকেন ঢাকার মোহাম্মাদপুরে নূরজাহান রোডের একটি বাসায়। সেলিমের গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে।

র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপরাশেন) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারওয়ার বলেন, অনলাইনে কয়েন বিক্রি করে ক্যাসিনো খেলায় জুয়ারিদের উদ্বুদ্ধ করতেন সেলিম। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় খুলেছিলেন গোপন ক্যাসিনো। এসব অর্জিত টাকা পাচার করতেন বিদেশে। এমনকি প্রতি মাসে তারেক রহমানকে এক কোটি টাকা পাঠাতেন বলে গোপন সূত্রে জানা গেছে। থাইল্যান্ডে সেলিমের নিজস্ব বাড়ি ও হোটেল রয়েছে।

আটক সেলিমের দেয়া তথ্য অনুযায়ী গতকাল সোমবার রাতে র‌্যাব গুলশান-২ এর ৯৯ নম্বর সড়কের ১১/এ নম্বর ভবনে অভিযান চালায়। এ ভবনেই পি২৪ এর অনলাইন ক্যাসিনো পরিচালনা করতেন।

এদিকে, সেলিমের গুরু বিসিবির পরিচালক লোকমান ভূঁইয়াকে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে আরো দুই দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। পূর্বের রিমান্ড শেষ হলে সোমবার তাকে আদালতে হাজির করে আবারও ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। পরে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বলা হচ্ছে এতে করে আরো অনেকের নাম বেরিয়ে আসবে। গত ২৫ সেপ্টেম্বর লোকমানকে ঢাকার মনিপুরীপাড়ার একটি বাসা থেকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

 

 

 

কিউএনবি/রেশমা/১লা অক্টোবর, ২০১৯ ইং/দুপুর ১২:১৩