১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ১০:২৯

আধুনিক পুলিশ বাহিনী গড়তে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

 

ডেস্ক নিউজ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় দক্ষ ও আধুনিক পুলিশ বাহিনী গড়তে কাজ করছে সরকার। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রশানসকে উন্নত প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। 

আজ বুধবার সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে বাংলাদেশ পুলিশের কমিউনিটি ব্যাংকের উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন। 

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের পুলিশ ও গোয়েন্দা বাহিনী অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। দেশের প্রত্যেকটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যাতে নির্বিঘ্নে মানুষ ইবাদাত, উপাসনা করতে পারে, এ জন্য তারা নিরাপত্তা দিয়ে যাচ্ছে। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু তাই নয় ২০১৩-১৫ সালে আন্দোলনের নামে যারা মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে, তারা পুলিশের উপরও হামলা করেছে। তাদের নৃশংসতায় এ সময় ২৭-২৮ জন পুলিশ সদস্যকে আত্মাহুতি দিতে হয়েছে। এ সময় তিনি তাদের জন্য মাগফেরাত কামনা করেন। 

বঙ্গবন্ধু কন্যা বলেন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় যখন আসে তখন পুলিশ বাহিনী রেশন পেত ২০ শতাংশ। দ্বিতীয় মেয়াদে পুনরায় ক্ষমতায় আসলে তা ৪৬ শতাংশে উন্নীত করা হয়। পরবর্তীতে পুলিশ বাহিনীর উন্নত চিকিৎসা সেবা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধার জন্য ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে। চালু করা হয়েছে ঝুঁকিপূর্ণ ভাতা। এরই ধারাবাহিকতায় অন্যান্য বাহিনীর ন্যায় পুলিশ বাহিনীরও আজ কমিউনিটি ব্যাংক চালু হলো। 

শেখ হাসিনা বলেন, জাতিসংঘের শান্তি মিশনে আমাদের পুলিশ বাহিনী ভূমিকা রাখছে। বিশেষ করে নারী পুলিশ সদস্যরা এ কাজে অনেক বেশি প্রশংসা অর্জন করেছেন। এ জন্য পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি আরো বেশি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। 

তিনি বলেন, মাদক শুধু ব্যক্তি নয়, একটি পরিবার ও সমাজকে ধ্বংস করে। তাই মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কমিউনিটি পুলিশি সেবার প্রতি আরও জোর দিতে হবে। এ সেবা বাড়াতে পারলে মানুষের কাছে আস্থার জায়গা আরও অনেক বেশি শক্তিশালী হবে। 

পরে ১১টা ৬ মিনিটে পুলিশের কমিউনিটি ব্যাংকের উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

কিউএনবি/অনিমা/১১ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ই/দুপুর ১২:১৩