১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৫১

১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রতি বছর ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। দেশটিতে আজ (বৃহস্পতিবার) ৭৩ তম স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে। ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট ভারত ব্রিটিশ শাসন থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীনতা লাভ করেছিল। সেই কারণেই ১৫ আগস্ট দিনটি সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।  জওহরলাল নেহেরু ভারতের স্বাধীনতা দিবসে একটি ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন। যেটিকে ‘ট্রিস্ট উইথ ডেসটিনি’ বলা হয়। এটি ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর সংসদে দেওয়া প্রথম ভাষণ। প্রতি স্বাধীনতা দিবসে ভারতের যিনি প্রধানমন্ত্রী থাকেন, তিনিই লালকেল্লা থেকে পতাকা উত্তোলন করেন।

তবে ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট এ পতাকা তোলা হয়নি। লোকসভা সচিবালয়ের একটি গবেষণাপত্র অনুসারে, নেহেরু ১৯৪৭ সালের ১৬ আগস্ট লালকেল্লা থেকে পতাকা উত্তোলন করেছিলেন। ভারত-পাকিস্তানের সীমানাও ওই সালের ১৫ আগস্ট স্থির হয়নি। ১৭ আগস্ট র‌্যাডক্লিফ লাইনের ঘোষণার সঙ্গে এটির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।  ১৯৪৭ সালের ৪ জুলাই ব্রিটিশ হাউস অফ কমন্সে ভারতীয় স্বাধীনতা বিল পেশ করা হয়। এ বিলে ভারত ভাগ ও পাকিস্তান গঠনের প্রস্তাব ছিল। বিলটি ১৯৪৭ সালের ১৮ জুলাই গৃহীত হয়। ১৪ আগস্ট দেশ ভাগের পর ১৪-১৫ আগস্ট মধ্যরাতে ভারতের স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়েছিল।

রাজগোপালাচারী লর্ড মাউন্টব্যাটেনকে বলেছিলেন, তিনি ১৯৪৮ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত যদি অপেক্ষা করেন, তাহলে তার কাছে স্থানান্তর করার কোনো শক্তি থাকবে না। এমন পরিস্থিতিতেই মাউন্টব্যাটেন ১৫ আগস্ট দিনটিকে ভারতের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে বেছে নেওয়ার পক্ষে ছিলেন।  একই সঙ্গে, কিছু ইতিহাসবিদ মনে করেন, মাউন্টব্যাটেন ১৫ আগস্ট তারিখটিকে শুভ বলে বিবেচনা করেছিলেন। এ জন্যই তিনি ভারতের স্বাধীনতার জন্য ওই তারিখটি বেছে নিয়েছিলেন।

মাউন্টব্যাটেনের কাছে ১৫ আগস্ট দিনটি মঙ্গলজনক ছিল, কারণ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ১৯৪৫ সালের ১৫ আগস্ট জাপানি সেনাবাহিনী আত্মসমর্পণ করেছিল এবং মাউন্টব্যাটেন সে সময় মিত্রবাহিনীর সেনাপতি ছিলেন।

সূত্র: এনডিটিভি।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১৫ই আগস্ট, ২০১৯ ইং/রাত ৮:৩৩