১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৯:৪৩

কাশ্মীরি মুসলমানদের স্রেব্রেনিকার গণহত্যার সতর্কতা ইমরানের

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারত জম্মু ও কাশ্মীরে মুসলমানদের বিরুদ্ধে স্রেব্রেনিকা মতো গণহত্যা ও জাতিগত নিধন চালাতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।  বৃহস্পতিবার ভারতের স্বাধীনতা দিবসে পাকিস্তান ঘোষিত ‘কালো দিবস’ উপলক্ষে টুইটারে দেয়া এক বার্তায় তিনি এ কথা বলেন।

১৯৮৫ সালের জুলাই মাসে স্রেব্রেনিকাতে ৮ হাজারের বেশি বসনিয়ান মুসলিমকে হত্যা করেছে বসনিয়ান সার্ববাহিনী। ডাচ সেনাদের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটেছিল, যেখানে তাদের আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী হিসেবে কাজ করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।  বসনিয়ার পশ্চিম অঞ্চল স্রেব্রেনিকাকে সার্ববাহনী ঘেরাও করেছিল, তারা নিজেদের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য মুসলিম ও ক্রোয়েটদের কাছ থেকে ওই অঞ্চলটি নিতে চেয়েছিল।

টুইটবার্তায় বিশ্বশক্তির প্রতি প্রশ্ন রেখে ইমরান খান বলেন, কাশ্মীর নিয়ে নীরবতা পালন করে বিশ্ব কি গুজরাট ও স্রেব্রেনিকার মতো আরেকটি মুসলিম গণহত্যা দেখতে চায়? এদিকে কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন ও সাংবিধানিক মর্যাদা বাতিলের প্রতিবাদে ভারতের স্বাধীনতা দিবসে পাকিস্তানজুড়ে কালো দিবস পালিত হচ্ছে। কালো দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও টুইটারে কালো প্রোফাইল পিকচার দিয়েছেন।

হিমালয় অঞ্চল কাশ্মীরকে ভারত-পাকিস্তান উভয় দেশই পুরোটা দাবি করে আসছে। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগ হয়। এর পর এ অঞ্চলটি নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ১৯৪৮, ১৯৬৫ ও ১৯৭১ তিনটি বড় যুদ্ধ হয়। এর মধ্যে দুই বড় যুদ্ধ হয় কাশ্মীর নিয়ে।  বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের হিসাব অনুযায়ী ১৯৮৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন।

সূত্র: ইয়েনি শাফাক, ডন ও জিয়ো টিভি।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১৫ই আগস্ট, ২০১৯ ইং/সন্ধ্যা ৭:২১