২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং | ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৫১

যৌন হয়রানীকারি শিক্ষক রমজান আলীকে বাঁচাতে হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের চরম মিথ্যাচার, দিনাজপুরে নিন্দার ঝড়

 

মোঃ আফজাল হোসেন,ফুলবাড়ী দিনাজপুর প্রতিনিধি : গৃহকর্মীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক এবং ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিষ্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের সাময়িক বরখাস্তকৃত সহকারী অধ্যাপক মো. রমজান আলীকে বাঁচাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সংবাদ সম্মেলনে মিথ্যে তথ্য দেওয়ায় নিন্দার ঝড় ঝড় উঠেছে দিনাজপুরে।

যৌন হয়রানিকারী শিক্ষকের পক্ষ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এমন মিথ্যাচারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, দিনাজপুর মহিলা পরিষদ, নাগরিক উদ্যোগ, অনাচার প্রতিরোধ কমিটিসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।দিনাজপুর মহিলা পরিষদের সভাপতি এবং হাইকোর্টের নির্দেশ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গঠিত যৌন নির্যাতন অভিযোগ গ্রহনকারী কমিটির সদস্য কনিজ রহমান তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, গত শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছে যে, রমজান আলীর বিরুদ্ধে এক ছাত্রী মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলো।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এ তথ্য যৌন হয়রানীকারি শিবির ক্যাডার রমজান আলীকে বাঁচানোর জন্য মিথ্যাচার। ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী ২০১৭ সালের ১৮ জুলাই রমজান আলীর বিরুদ্ধে যৌন সম্পর্ক চেষ্টার জন্য চাপ দেওয়ার অভিযোগ এনে বায়োকেমিষ্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যানের কাছে ১৩ পৃষ্টার লিখিত অভিযোগ দেন।লিখিত অভিযোগের সাথে রমজান আলীর সাথে মুঠোফোনে কথোপোকথনের রেকর্ড জমা দেন ওই ছাত্রী। সেই অভিযোগে রমজান আলী পরীক্ষায় পাশের জন্য তাঁর সাথে বাহিরের হোটেলে থাকার জন্য ওই ছাত্রীকে চাপ দেন।

স্ত্রীর অনুপস্থিতিতে বাড়িতে যাবার জন্য চাপ দেন। এসব অনুরোধ না রাখলে পরীক্ষায় ফেল করার হুমকিও দেওয়ার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।এ অভিযোগকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মানসিক নির্যাতন বলে মিথ্যাচার করে রমজান আলীকে বাঁচানোর চেষ্টা করছে।সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছে রমজান আলীর স্ত্রী যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে রাজশাহী আলাদতে মামলা করেছে।একই ঘটনায় আদালতে মামলা চলমান থাকার কারনে রিজেন্ট বোর্ড রমজান আলীকে চুড়ান্ত বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। কানিজ রহমান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন রমজান আলীর স্ত্রীর যৌতুকের মামলাটি ব্যক্তিগত।

যার কারনে বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্তে যৌতুকের অভিযোগে স্ত্রীর মামলাটি অন্তভুক্ত করা হয়নি। শুধুমাত্র ছাত্রীকে যৌন হয়রানী এবং গৃহকর্মীর সাথে অনৈতিক সম্পর্কের সত্যতা পেয়ে তা আমলে নিয়ে রমজান আলীকে চুড়ান্ত বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছিলো।অথচ যে বিষয়টি তদন্তের অন্তভুক্ত নয় সেই বিষয়টি ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে রমজান আলীকে এ যাত্রায় আবারো রক্ষা করা হলো।এ সিদ্ধান্তের ফলে পরোক্ষভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন হয়রানী ও অনৈতিক কর্মকান্ডর্কে সমর্থন দেওয়ার সামিল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন যৌন হয়রানীকারি রমজান আলীকে বাঁচাতে যে মরিয়া তার আরেকটি প্রমাণ মেলে বায়োকেমিষ্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আবু সাঈদের লিখিত অভিযোগের বিষয়ে গত এক বছরে কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায়।রমজান আলী স্ত্রীর মামলা থেকে বাঁচতে গত বছরের ফেব্রুয়ারীতে শিক্ষা সফরের সূচী জালিয়াতি করে আদালতে জমা দিয়েছিলো। বিষয়টি আদালত বুঝতে পেরে সঠিক শিক্ষা সফর সূচী রমজান আলীকে জমা দিতে বলে। তখন রমজান আলী তাঁর সুবিধা মতো শিক্ষা সফর সূচী তৈরী করে ড. আবু সাঈদের স্বাক্ষর চান। ডা. আবু সাঈদ সেটাতে স্বাক্ষর জমা না দিলে রমজান আলী সরকার পরিবর্তন হলে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন।

এ ঘটনায় গতবছর ২৮ মে ড. আবু সাঈদ রেজিষ্ট্রারের লিখিত অভিযোগ করলেও প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নেয়নি। কারন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জানে শিক্ষা সফরের সঠিক তথ্য দিলে রমজান আলী তাঁর স্ত্রীর মামলায় সাজা পাবেন।রিজেন্ট বোর্ডের এ ধরনের সিদ্ধান্ত একজন যৌন হয়রানীকারি ব্যক্তিকে উৎসাহিত এবং অসহায় স্ত্রী ও কোমলমতি শিক্ষার্থীদের অতংকিত করেছে।কানিজ রহমান বলেন, ইয়াসমিনের স্মৃতি বিজড়িত দিনাজপুরের হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের শিবির ক্যাডার রমজান আলীকে বাঁচানোর সকল অপচেষ্টা রুখে দেওয়া হবে।

রমজান আলীকে এক মাসের মধ্যে চুড়ান্ত বহিষ্কারের আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে।তা না হলো দিনাজপুর অবরোধের ডাক দিয়েছে মহিলা পরিষদ। দিনাজপুর অবরোধ সফল করতে মহিলা পরিষদ ধারাবাহিক ভাবে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক প্রতিষ্ঠানে মতবিনিময় করবে।বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর রাষ্ট্রপ্রতি, প্রধানমন্ত্রী, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে লিখিত অভিযোগ দেবে। মানবন্ধন এবং অনশন কর্মসূচী পালন করবে।

কিউএনবি/রেশমা/১৪ই জুলাই, ২০১৯ ইং/বিকাল ৫:২৬