১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:৫৮

লক্ষ্মীপুরে পরকীয়া প্রেমিকের হাত ধরে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

মু.ওয়াছীঊদ্দিন,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরে শ্বশুরবাড়ি থেক স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা নিয়ে গোপনে পালিয়ছে উম্মে সালমা (২৪) নাম এক প্রবাসীর স্ত্রী।গত ৯ জুলাই সকালে সদর উপজলার জামিরতলী গ্রামর ওই গৃহবধূ পালিয় যায়। এরপর সম্ভাব্য সব আত্মীয়-স্বজনর বাড়িততে খোঁজাখুঁজির পরও তার সন্ধান না পাওয়ায় গত মঙ্গলবার (১১ জুলাই) চদ্রগঞ্জ থানায় একটি অভিযাগ দায়ের করেন ভুক্তভুগী প্রবাসীর বাবা আবুল কালাম। এতে উম্ম সালমাসহ ৩ জনক আসামী করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করছন চদ্রগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মুজিবুর রহমান।

জানা গেছে, উম্মে সালমা সদর উপজলার দত্তপাড়া ইউনিয়নর পশ্চিম সৈয়দপুর গ্রামের তোয়ার বাড়ির আবদুল হাকিমের মেয়ে। ২০১২ সালর শেষ দিকে পারিবারিকভাবে দিঘলী ইউনিয়ন জামিরতলী গ্রামের আবুল কালামের ছেলে নুর আলমের সাথে উম্মে সালমার বিয়ে হয়। বর্তমান তাদেরর সংসারে ৬ বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ২০১৬ সালে নুর আলম বিদেশ যায়। এরপরই উম্মে সালমা পরকীয়ায় জড়িয় পড়ে বলে অভিযোগ তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনের। এ নিয়ে শালিস বৈঠক হয় বলেও জানা যায়।

অভিযাগ সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন শ্বশুরবাড়ি থেকে নগদ ২ লাখ ১২ হাজার টাকা ও ৬ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে গোপনে পালিয় যায় উম্মে সালমা। এসময় শিশু পুত্রকে ও সাথে নিয়ে যান তিনি। এরপর উম্মে সালমার বাবার বাড়িতে খবর নিয়ে ও তাকে পাওয়া যায় নি। বাদী আবুল কালাম বলেন, উম্মে সালমা আমার পুত্রবধূ। সে পালিয় গিয়ে আমার পরিবারর মানসম্মান ধূলায় মিশিয়ে দিল। তার মা-বাবা আমাদর সাথে অসজন্যমূলক আচরণ করছে । কি তারা নিযেদের মেয়েকে নিয়ে চিন্তিত নয়। আমি আমার পুত্রবধূ ও নাতির সন্ধান চাই।

অভিযাগ উঠছে, পরকীয়া প্রমিকের হাত ধরে পালিয়েছে উম্মে সালমা । এতে তার বাবার বাড়ির লোককজনের সহযোগিতা রয়েছে। তবে বিষয়টি অস্বীকার করছেন উম্মে সালমার বাবার বাড়ির লোকজন। তার মা উম্মে হানি বলেন, উম্মে সালমা কোন ছেলেরর সঙ্গ পালিয়েছে কিনা তা আমরা জানি না। চদ্রগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মুজিবুর রহমান বলেন, প্রবাসীর স্ত্রী উম্মে সালমার সন্ধান এখনো পাওয়া যায় নি। অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত চলছে।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১২ই জুলাই, ২০১৯ ইং/ বিকাল ৫:২৬

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন