২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ১২:৪২

তীব্র গরমে পানি নিয়ে সংঘাত! প্রাণ গেল ১৫ বানরের

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে এখন প্রচণ্ড গরম চলছে। আর এই গরমে তাপমাত্রা চড়েছে ৪৫ ডিগ্রি। এই তীব্র গরম থেকে রক্ষা পেতে ১৫ টি বানর পানি পান করতে চাইলেও তাদের করতে বাধা দিয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বি বানরগোষ্ঠী। এর ফলে তাদের ডিহাইড্রেশন (পানিশূণ্যতা) সৃষ্টি হয়। এবং অবশেষে অবরুদ্ধ অবস্থায়  তারা মারা যায়। গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ভারতের মধ্য প্রদেশের একটি বনের কয়েকটি গুহার পাশ থেকে রেহসাস গোত্রের ১৫ বানরের লাশ পাওয়া গেছে।

ভারতে তীব্র গরমে জুস খাচ্ছে এক তৃষ্ঞার্ত বানর 

তদন্তকারীরা মনে করছেন, পানির সরবরাহে অস্বীকৃতি জানানোকে কেন্দ্র করে প্রতিযোগী বানর গোষ্ঠীর সঙ্গে ওই বানরদের লড়াই বেধেছিল। 

এ বিষয়ে জেলা বন কর্মকর্তা পিএন মিশ্র বলছেন, আমরা সব ধরনের সম্ভাবনার তদন্ত করছি। এর মধ্যে বনটিতে পানির জন্য বানরদের মধ্যে সংঘর্ষের সম্ভাবনাও রয়েছে যার কারণে ১৫টি বানরের মৃত্যু হয়েছে। 

তিনি জানান, বনের ওই গুহাগুলোকে কেন্দ্র করে বানরদের ৩০-৩৫টি শক্তিশালী গোষ্ঠী রয়েছে। 

স্থানীয়রা দাবি করছেন,বানরদের বড় একটি দল অন্য একটি দলের পেছনে ধাওয়া করেছিল। ধাওয়া খাওয়া বানরের দলটি  শুকনো নদীর একটি প্রবাহ থেকে পানি পানির চেষ্টা চালিয়েছিল। 

মনে করা হচ্ছে, তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় বড় বানরেরা নিজেরা বেঁচে থাকতে অন্য বানরদের (মৃত বানরগুলো) গুহাগুলোতে আবদ্ধ থাকতে বাধ্য করেছিল। 

বানরগুলো হিটস্ট্রোকের কারণে মারা গেছে বলে মনে করা হচ্ছে

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, একটি ময়না তদন্তের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, কয়েকটি বানর হিটস্ট্রোকের কারণে ‘মাল্টি-অর্গান ফেইল্যুর’ এ মারা গেছে।  

জানা গেছে, প্রায় পাঁচ বা ছয়টি ভিন্ন বানরগোষ্ঠী ওই বন এলাকায় বসবাস করে। তীব্র গরমে এই বনের নদীর পানির ধারা শুকিয়ে গেছে। এ কারণে পানির জন্য দলগুলোর মধ্যে বিশাল দ্বন্দ্ব শুরু হয়।

মিশ্র নামের একজন বলেন, এই দ্বন্দ্বের ঘটনা বিরল এবং অদ্ভূত। কারণ সাধারণত তারা এই ধরনের দ্বন্দ্বে জড়িত হয় না। 

সূত্র : দ্য মিরর

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১২ই জুন, ২০১৯ ইং/সন্ধ্যা ৬:৩৭