২৭শে জুন, ২০১৯ ইং | ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:১৩

ঈদ শেষে ফিরছে মানুষ

 

ডেস্কনিউজঃ প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের ছুটি উপভোগ করে রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছে কর্মজীবী মানুষ। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঈদের ছুটি শেষ। এর মাঝে শুক্র ও শনি ছুটি রয়েছে। তাই ঢাকায় ফেরা মানুষের চাপ বাড়বে ৯-১০ তারিখের দিকে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সড়ক, নৌ ও রেলপথে পরিবার-পরিজন নিয়ে ঢাকায় ফিরছেন কর্মজীবীরা।

গতকাল শুক্রবার ও আজ শনিবার ভোর থেকেই রাজধানীর সদরঘাটে দেশের দক্ষিণাঞ্চল থেকে লঞ্চে যাত্রীদের ঢাকায় ফিরতে দেখা যায়। একই চিত্র চোখে পড়ে গাবতলী বাস টার্মিনালে।

গ্রামের বাড়ি রাজবাড়ী থেকে ঢাকায় ফিরেছেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকতা। গাবতলী বাসস্ট্যান্ডে যখন তিনি বাস থেকে নামছিলেন তার সঙ্গে পরিবারের অন্য সদস্যরাও ছিলেন। এ সময় তিনি বলেন, শনিবার থেকে সড়কে অনেক জ্যাম (যানজট) থাকবে। তা ছাড়া অফিসও খুলবে। ভোগান্তিহীন যাত্রার জন্য তাড়াতাড়ি ঈদের ছুটি শেষ করে ঢাকায় ফিরেছি।

বরিশাল থেকে এমভি লঞ্চে করে সদরঘাটে ফেরা শফিকুল জানান, ভিড় না থাকায় ঢাকায় ফেরা স্বস্তিদায়ক হলেও অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে লঞ্চগুলো। তিনি একটি প্রাইভেট ফার্মে চাকরি করেন। আগামীকাল থেকে অফিস করতে হবে, তাই বেশি ভাড়া দিয়ে হলেও আসতে হয়েছে।

ইশরাত নামে আরেক যাত্রী বলেন, ‘লঞ্চ পন্টুনে না থামিয়ে অন্য লঞ্চের পেছনে নোঙর করায় মালামাল নামাতে সমস্যা হয়েছে। ঘাটে অব্যবস্থাপনার কারণে যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।’

ঝিনাইদহ থেকে গাবতলীতে এসেছেন মনি মোহন ম-ল। মাগুরা সিংড়া বিহারীলাল ডিগ্রি কলেজের এই ছাত্র বলেন, ব্যক্তিগত কাজে ঢাকায় এসেছি। একটু তাড়াতাড়ি এসেছি। কারণ ঈদের ছুটিতে ঢাকা ফেরা মানুষের ভিড় বাড়বে, এ জন্যই আগে আসা।

গাবতলী বাস টার্মিনালে শ্যামলী পরিবহনের কাউন্টার ম্যানেজার শওকত আলী বলেন, এবারের ঈদে ৯ দিন ছুটি ছিল। কেউ কেউ ফিরলেও অনেকেই বাড়ি রয়ে গেছেন। তিনি বলেন, আগামী ৯ তারিখ থেকে যাত্রীরা বাড়ি থেকে ফেরা শুরু করবেন। ঈদের ছুটি শেষে ঢাকামুখী মানুষদের একটা চাপ থাকবে।

হানিফ এন্টারপ্রাইজের কাউন্টার ম্যানেজার বলেন, এখন পর্যন্ত বাড়িফেরত যাত্রীর চাপ তেমন নেই। ঈদে সরকারি ছুটি ৯ দিন থাকায় এখনো পুরোদমে রাজধানীমুখী মানুষের ঢল শুরু হয়নি।

এছাড়া শনিবার সকালে রাজধানীর সায়েদাবাদ, মহাখালী ও গাবতলী বাস টার্মিনালে বাসে করে ঢাকায় ফিরতে দেখা গেছে কর্মজীবী মানুষদের। তবে বাস টার্মিনালগুলোতে এখনো যাত্রীর চাপ কম।

সায়েদাবাদ টার্মিনালের শ্যামলী কাউন্টারের ম্যানেজার আবুল কালাম বলেন, ‘ছুটি শেষ হলে যাত্রীর চাপ বাড়বে।’ গাবতলী টার্মিনালে বরকত ট্রাভেলসের ম্যানেজার আশিকুর রহমান বলেন, ‘উত্তরাঞ্চল থেকে গতকাল শুক্রবার সকালে যাত্রীবোঝাই বাস ঢাকায় এসেছে।’

এদিকে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে গিয়ে দেখা গেছে, দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ঈদ শেষে ঢাকায় ফিরছে কর্মজীবী মানুষ।

অন্যদিকে শুক্রবারও কিছু মানুষ ঢাকা থেকে দেশের বাড়ি যেতে ভিড় করেন সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল, কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ও বাস টার্মিনালগুলোতে।

 

কিউএনবি/আয়শা/৮ই জুন, ২০১৯ ইং/বিকাল ৪:৩১

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial