২০শে মার্চ, ২০১৯ ইং | ৬ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:১৫

শিক্ষার্থীরাই সচেতন করবে পরিবারকে উপকূলীয় মোরেলগঞ্জ -শরণখোলায় দুর্যোগ মেলা অনুষ্ঠিত

 

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির.সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার : দুর্যোগ মোকবিলায় শিক্ষার্থীরাই সচেতন করবে পরিবারকে সে কারনে তাদের সক্ষমতা অর্জনে পাঠ্যসূচীতে সহপাঠ্য হিসেবে পড়ানো হচ্ছে ‘দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস’ নিয়ে। দেশে এই প্রথম বারের মতো বাগেরহাটের শরণখোলা ও মোরেলগঞ্জের দুটি উপজেলায় ৬৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়-মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণিতে সহপাঠ্য হিসেবে সম্পৃক্ত করা হয়েছে দুর্যোগের বিষয়টি। 

জাপানের শিক্ষার্থীদের দুর্যোগ প্রস্তুতি বিষয়ক প্রতিযোগিতা ‘বোসাই কোসিয়েন’ এর আলোকে শরণখোলায় ৩০টি ও মোরেলগঞ্জে ৩৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ কর্মসুচী চালু করা হয়। স্কুল ভিত্তিক দুর্যোগ প্রস্তুতি পরিকল্পনা গ্রহন ও দুর্যোগ প্রস্তুতি কার্যক্রম জোরদার করাই এর মূল লক্ষ্য। জাপান ভিত্তিক আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ‘শাপলা নীড় এবং জাইকার সহায়তায় স্থানীয় জাগ্রত যুব সংঘ (জেজেএস) নামের একটি এনজিও এ কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। 

সংশ্লিষ্টরা জানান, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে শিক্ষার্থীদের দুর্যোগের বিঘয়টি  বিদ্যালয়ে সহপাঠ্য হিসেবে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। সে জন্য বেছে নেওয়া হয় উপকূলীয় দুর্যোগ প্রবণ দুটি উপজেলাকে। চলতি বছর ৬৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সপ্তম শ্রেণিতে সহপাঠ্য হিসেবে দুর্যোগের বিষয়টি সংযুক্ত করা হয়েছে।

‘দুর্যোগ প্রস্তুতি শিখছি, ঘূণিঝড় দুর্যোগ মোকাবিলায় লড়ছি’ প্রতিপাদ্যের আলোকে বুধবার বাগেরহাটের শরণখোলায় দিনব্যাপী দুর্যোগ মেলা-২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মেলায় দুর্যোগ প্রস্তুতিমূলক প্রতিযোগিতায় উপজেলার ৩০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সপ্তম শ্রেণির ২৫০ জন শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করে। মঞ্চ উপস্থাপনার মাধ্যমে দুর্যোগকালীন প্রস্তুতি, দুর্যোগের নাটিকা, জারি গান, দুর্যোগ প্রস্তুতি পরিকল্পনা ও দেয়াল লেখনীর ওপর প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। মঞ্চ উপস্থাপনায় খোন্তাকাটা মফিদিয়া মহিলা দাখিল মাদরাসা, দুর্যোগ প্রস্তুতি পরিকল্পনায় রসুলপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দেয়াল লেখনীতে সম্মিলিতভাবে ধানসাগর ইউনাইটেড মাধ্যমিক, বিকে নিম্ন মাধ্যমিক ও আনোয়ার হোসেন মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রথম স্থান অধিকার করে।

প্রতিযোগীতা শেষে শরণখোলা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কৃষি কর্মকর্তা সৌমিত্র সরকারের সভাপতি অনষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান। বিশেষ অতিথি ছিলেন জাপানের জাইকা এ্যাডভাইজর ফুকিকো ইশি, জাপান ভিত্তিক আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার কান্ট্রি ডাইরেক্টর তোমোকো উচিয়ামা, জেজেএস’র নির্বাহী পরিচালক এটিএম জাকির হোসেন, রায়েন্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার এমএ খালেক খান, শরণখোলা সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক সাব্বির আহমেদ মুক্তা, দৈনিক পূর্বাঞ্চল পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার এইচএম আলাউদ্দিন, এনজিও সমন্বয় কমিটির সভাপতি মীর সরোয়ার হোসেন ।

 

কিউএনবি/রেশমা/১৪ই মার্চ, ২০১৯ ইং/বিকাল ৫:৫২