২২শে মার্চ, ২০১৯ ইং | ৮ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:১০

সংলাপের প্রস্তাব ঐক্যফ্রন্টের নতুন ভাঁওতাবাজি: তথ্যমন্ত্রী

 

ডেস্ক নিউজ : আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, পুনঃনির্বাচনের জন্য সংলাপের প্রস্তাব ঐক্যফ্রন্টের নতুন ভাঁওতাবাজি। নির্বাচনে হেরে নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকার জন্য এবং জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে সরানোর জন্য ঐক্যফ্রন্ট এ নতুন ভাঁওতাবাজি শুরু করেছে। কিন্তু দেশের জনগণ এত বোকা নয়। অতীতের মতো আপনাদের এই ভাঁওতাবাজিও জনগণ ধরে ফেলেছে।

তিনি বলেন, তাই আপনাদের বলব- নিজেদের পরাজয়ের কারণ বিশ্লেষণ করুন, দলে নেতৃত্বের পরিবর্তন আনুন এবং বিএনপিকে ঢেলে সাজান। তার পাশাপাশি আপনাদের কয়েকজন নেতারও মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসা করান। নির্বাচনে বিএনপি ‘অকশনের’ মাধ্যমে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে দাবি করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি প্রথমে ৩০০ আসনে ৮০০ মতো প্রার্থীর কাছে ফরম বিক্রি করে। সেখান থেকে ‘অকশনের’ মাধ্যমে সর্বোচ্চ ‘বিডারকে’ প্রার্থী নির্বাচিত করেছিল।

তিনি বলেন, ৩০০ আসনে ৮০০ প্রার্থী এটা বাংলাদেশের নির্বাচনের ইতিহাসে আর কখনো দেখা যায়নি। কিন্তু বাংলাদেশের জনগণ ভোটের মাধ্যমে বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করেছে। কারণ যারা ‘অকশনের’ মাধ্যমে মনোনয়ন বিক্রি করে তারা কীভাবে জয়লাভ করবে? নির্বাচনের ১০দিন আগে হাত গুটিয়ে ঘরে বসে থেকে কি জয়লাভ করা যায়?

অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা সৈয়দ হাসান ইমাম, কার্যকরী সভাপতি অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান।

এছাড়া অরুন সরকার রানা, সহসভাপতি চিত্রনায়িকা ফারহানা আমিন নূতন, সহসভাপতি রোকেয়া প্রাচী, কুষ্টিয়া আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান বিটু, কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম, অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস, অভিনেত্রী তারিন, কণ্ঠশিল্পী এস.ডি রুবেল, চিত্রনায়িকা শাহানুর, টিভি উপস্থাপিকা জেনিফার, হাবিব উল্লাহ রিপন, বৃষ্টি রাণী সরকার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সভা শেষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সদস্যরা নতুন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১২ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং/রাত ১০:১০