২৪শে জুন, ২০১৯ ইং | ১০ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:৩২

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের তিন প্রার্থী সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হতে চায়

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ : একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচিত এমপিরা শপথ নিয়েছেন গত বৃহস্পতিবার। সোমবার যাত্রা শুরু করছে নতুন সরকার। এরইমধ্যে সংরক্ষিত মহিলা আসনে মনোনয়ন নিয়ে তৎপরতা শুরু করেছে আওয়ামীলীগ। সংসদের প্রথম অধিবেশনেই সংরক্ষিত আসনের এমপিদের যোগদান নিশ্চিত করতে চায় দলটি।গোপালগঞ্জ-১ আসন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন যারা, তাদের মধ্যে অ্যাডভোকেট উম্মে রাজিয়া কাজল ও বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আরিফা রহমান রুমা অন্যতম। অন্য প্রার্থী হলেন গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান তানিয়া হক শুভা।

উম্মে রাজিয়া কাজল ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ধারাবাহিকতায় আওয়ামীলীগের মনোনয়নে গোপালগঞ্জ জেলার জন্য নির্ধারিত সংরক্ষিত ৪৩ নং আসন থেকে প্রথমবারের মতো এমপি নির্বাচিত হন। অ্যাডভোকেট উম্মে রাজিয়া কাজল আবারো সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হতে চান। প্রতিবন্ধী ও নিম্ন মাধ্যমিক স্কুলসহ গোপালগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন তিনি। গোপালগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় শোক দিবস, ঈদ শুভেচ্ছা, শারদীয় শুভেচ্ছাসহ রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে তিনি এলাকায় পরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি মুকসুদপুর পৌরসভার পূর্বাকর্দি গ্রামের মেয়ে।তানিয়া হক শুভা গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ যুব মহিলালীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক। তিনি মুকসুদপুর উপজেলার বাশবাড়িয়া ইউপির ঝুলিগ্রামের মেয়ে।

আরিফা রহমান রুমা বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়(বাউবি) শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও সহযোগী অধ্যাপক। তার ভাষ্য, রাজনীতির বাইরে অন্য যা কিছু করেছি বা করি সবই আমার রাজনীতির গতিপথ নির্ধারণে সাহায্য করার জন্য। তিনি মুকসুদপুর পৌরসভার গুলাবায়িা গ্রামের মুন্সী আতিয়ার রহমানের মেয়ে।

কিউএনবি/রেশমা/১০ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং/বিকাল ৪:০২

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial