২৪শে মার্চ, ২০১৯ ইং | ১০ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:০০

শেখ হাসিনার কঠোর হুঁশিয়ারিতে সরে দাঁড়ালেন আবুল বাশার

আবদুল্লাহ রিয়েল,ফেনী প্রতিনিধি : কঠোর সতর্কবার্তা ও কলাকৌশলের পরও আসন্ন সংসদ নির্বাচনে প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী জোটেই দলীয় ‘স্বতন্ত্র’ প্রার্থীদের ঠেকানো সম্ভব হয়নি।এই কথিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরাই মূলত বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে পরে চিহ্নিত হবেন উভয় জোটের কাছে।ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জোটে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংখ্যা তুলনামূলক বেশি। তবে পিছিয়ে নেই সরকারবিরোধী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টও।
প্রায় সব আসনেই একাধিক ব্যক্তিকে বিএনপির দলীয় প্রত্যয়নপত্র দেওয়া হয়। এর পরও অনেক আসনেই দলীয় পদধারীরা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।ফেনী-৩ (সোনাগাজী-দাগনভূঞা) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ থেকে গত দুইবারের মনোনীত প্রার্থী বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবুল বাশার।আবার মনোনয়নবঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন তার পুত্র ইশতিয়াক আহমদ সৈকত।
পিতা-পুত্রের স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার সংবাদ আলোচনায় পুরো নির্বাচনী এলাকাজুড়ে। বুধবার গণভবনে ১৯ (ডিসেম্বর) শেখ হাসিনার কঠোর হুঁশিয়ারিতে সরে দাঁড়ালেন আবুল বাশার।আওয়ামী লীগের ‘স্বতন্ত্র’ প্রার্থী আবুল বাশার সরে দাড়ানোর সত্যতা নিশ্চিত করেন দাগনভূঞার পৌর কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান সবুজ।

কিউএনবি/রেশমা/১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং/দুপুর ২:০৮