২০শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং | ৭ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:৫৫

সাদুল্যাপুরে প্রতিপক্ষের জমিতে বসতবাড়ী নির্মানের অভিযোগ

 

জাহিদ খন্দকার গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে প্রতিপক্ষের জমিতে জোরপূর্বক বসতবাড়ী নির্মান ও বাদিকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিরোধপূর্ণ জমিতে ঘরবাড়ি স্থাপনকে কেন্দ্র করে রোববার পর্যন্ত উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বাদি ও তাঁর পরিবার। মামলার বিবরণে জানা গেছে, সাদুল্লাপুর উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের আরাজী ছান্দিয়াপুর গ্রামের মৃত আব্দুল জোব্বার ব্যাপারীর ছেলে আবুল কাশেম ব্যাপারী তাঁর পিতার নিকট থেকে পাশর্^বর্তি শ্রীকলা মৌজাস্থ ৩৮ শতক জমি ১৯৯৫ ইং সনে ক্রয় মূলে আব্দুল কাশেম ব্যাপারী ভোগ-দখল করে আসছিলেন। প্রতিপক্ষ তাঁরই সহোদর ভাই আব্দুল কুদ্দুস গংরা বিভিন্ন সময়ে তফসিল বর্ণিত জমি জোরপূর্বক জবর দখলের চেষ্টা করে আসে।

এ মর্মে আব্দুল কাশেম ব্যাপারী গাইবান্ধা জেলা বিজ্ঞ ম্যাজিস্টেট্র আদালতে আব্দুল কুদ্দুস গংদের ৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করে। পিটিশন মামলা নং ২৮৫/১৮ যাহা বিচারাধীন রয়েছে। গাইবান্ধার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এবিএম সাদিকুর রহমান গত ১৭ অক্টোবর বিরোধ পূর্ণ জমি তদন্ত করার জন্য সাদুল্লাপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি)কে তদন্তের নির্দেশ দেন। সম্প্রতি উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি)’র নির্দেশে জামালপুর ইউনিয়ন উপ-সহকারি কমিশনার (ভূমি) তফসিল বর্ণিত জমি তদন্ত করেন। তদন্তের প্রতিবেদন দেখা যায়, বাদি আবুল কাশেম ব্যাপারী খারিজ মূলে ভোগ-দখল করে আসছে। বিদ্যামান পরিস্থিতিতে আব্দুল কুদ্দুস গংরা পেশী শক্তি খাটিয়ে ওই জমিতে ঘরবাড়ি স্থাপন অব্যহত রেখেছে।

শুধু তায় নয়, বাদিকে মামলা তুলে নেয়াসহ বিভিন্ন সময়ে প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শন করে আসছে আসামিরা। এর ফলে আবুল কাশেম ব্যাপারী তাঁর পরিবার পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। যে কোনো মূহুর্তে প্রতিপক্ষরা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে পারে বলে আসঙ্কাবোধ করছেন আবুল কাশেম ব্যাপারী

 

 

কিউএনবি/অায়শা/২রা ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং /রাত ৮:৩৪