১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:২৪

এবার নিজ গৃহে পুড়ছেন যুবরাজ সালমান

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিহত হওয়ার ঘটনায় সৌদি আরবে রাজপরিবারের নানা মেরুকরণ চলছে। প্রতাপশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান একক কর্তৃত্ব বজায় রাখলেও রাজপরিবারে এখন তিনি প্রতিকূলতার মুখোমুখি।

সৌদ বংশের বিভিন্ন শাখার প্রায় সব সদস্য এখন মোহাম্মাদ বিন সালমানের বিরোধিতায় সোচ্চার হয়েছেন। বিন সালমানকে তারা সৌদি আরবের পরবর্তী বাদশাহ হিসেবে দেখতে চান না।

দেশটির রাজকীয় আদালতের একাধিক ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।এদিকে আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, প্রিন্স আহমদ বিন আবদুল আজিজকে পরবর্তী বাদশাহ হিসেবে সমর্থন করা উচিত বলে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা সৌদি সরকারের উপদেষ্টাদের আভাস দিয়েছে।

বর্তমান বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের আপন ভাই প্রিন্স আহমদ প্রায় ৪০ বছর দেশটির উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন।কিন্তু বাদশাহ সালমান জীবিত থাকতে পুত্র যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে সরানো হবে না বলে মনে করছেন অন্যান্য রাজপুত্ররা। তারা মনে করছেন, বাদশাহ সালমান কিছুতেই তার প্রিয় পুত্রের বিরুদ্ধে অবস্থান নেবেন না।

ফলে ৮২ বছর বয়সী বাদশাহ সালমানের মৃত্যুর পর তার ভাই প্রিন্স আহমদকে(৭৬) বাদশাহ পদে বসানোর বিষয়ে যাতে এখন থেকে পদক্ষেপ নেয়া হয় সেই চেষ্টা করছেন মোহাম্মদ বিন সালমানবিরোধীরা।

বর্তমান বাদশাহর ভাইদের মধ্যে একমাত্র প্রিন্স আহমদই জীবিত আছেন। তিনি দীর্ঘদিন লন্ডনে স্বেচ্ছা নির্বাসনে ছিলেন। খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর তিনি দেশে ফিরেছেন। পশ্চিমা দেশগুলো থেকে পূর্ণ নিরাপত্তার আশ্বাস পাওয়ার পরই তিনি রিয়াদে ফিরেছেন বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে।

যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান নিজের হাতে সব রকম ক্ষমতা নিলেও এখন নিজের রাজপরিবার থেকেই তার বিরুদ্ধে আওয়াজ উঠছে। ফলে সালমানকে নিজ গৃহেই পুড়তে হবে নাকি এ আগুন তিনি নিভিয়ে ফেলতে পারবেন তা দেখতে আরও অপেক্ষা করতে হবে।

 

 

কিউএনবি/অায়শা/২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং/রাত ৮:৩২