২৬শে মে, ২০১৯ ইং | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:১৭

ঘোষণার আগে নিজেকে প্রার্থী দাবি করতে পারবেন না

 

ডেস্ক নিউজঃ  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘মনোনয়নের তালিকা যার যার মনগড়া। এসব তালিকার ভিত্তি নেই। কাউকে মনোনয়নের নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি। যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা অফিশিয়ালি ঘোষণা না করছি ততক্ষণ পর্যন্ত কেউ নিজেকে জোটের মনোনীত প্রার্থী দাবি করতে পারবে না।’ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে গতকাল সোমবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন কবে ঘোষণা করা হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘২৭ তারিখ পার করব না। কেননা নির্বাচন কমিশনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৭ নভেম্বর। এর আগেই প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা জানিয়ে দেওয়া হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা এখন জোটগতভাবে লড়ছি। তালিকার বিষয়ে আমাদের মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিদ্ধান্ত দেবেন। বিভিন্ন দলের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে এবং ১৪ দল, জাতীয় পার্টি, যুক্তফ্রন্ট—সবার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে আমরা প্রার্থী মনোনয়ন জোটগতভাবে ঘোষণা দেব।’

বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেপ্তারের অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপির অধিকাংশ নেতাকর্মী কোনো নাকোনো অপরাধে জড়িত। আগুন সন্ত্রাস, বাস পোড়ানো, ভূমি অফিসে আগুন, গাছ কাটা, রাস্তা কাটার সঙ্গে জড়িত। যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তারা আইনের দৃষ্টিতে নিরপরাধ নয়। বিনা অপরাধে কাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা প্রমাণ করুন।’ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তারেক রহমানের বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটা নির্বাচনী আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। নির্বাচন কমিশনকে আশু ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।’

নির্বাচন কমিশন তারেকের বিষয়ে তাদের কিছু করার নেই—এমনটা জানিয়েছে মনে করিয়ে দিলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ইলেকশন কমিশন কী বলেছে তা ভালো করে জানতে হবে।’বিষয়টি নিয়ে আদালতে যাবেন কি না জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দলগতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে জানানো হবে। নির্বাচন কমিশন থেকে কোনো প্রতিকার না পেলে আমরা জনতার আদালতে বিচার দেব।’

বিএনপি নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সারা দেশে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের পরিবেশ বিরাজ করছিল। শিডিউল ঘোষণার পর মনোনয়ন প্রদান পর্যায়ে তারা পরিকল্পিতভাবে মনোনয়ন সংগ্রহের নামে সারা দেশ থেকে তাদের নেতাকর্মীর পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের জড়ো করে পুলিশের ওপর হামলা করেছে। এত দিন যারা পরিবেশ-পরিবেশ বলে চিৎকার করছিল, শিডিউল ঘোষণার পর তারাই পরিবেশ নষ্ট করছে।’ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপদপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

 

 কিউএনবি/অদ্রি আহমেদ/২০.১১.২০১৮/ সকাল ৯.২৫

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial