১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:০২

কখনো কম্পিউটার ব্যবহার করেননি জাপানি সাইবার নিরাপত্তা মন্ত্রী!

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জাপানি পার্লামেন্টে সত্য কথা বলে তোপের মুখে পড়েছেন দেশটির সাইবার নিরাপত্তা মন্ত্রী।বুধবার পার্লামেন্টে বিরোধী দলের এক সংসদ সদস্যের প্রশ্নের জবাবে সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক অফিসের ডেপুটি প্রধান ইয়োশিতাকা সাকুরাদা (৬৮) বলেন, পেশাগত জীবনে তিনি কখনো কম্পিউটার করেননি। খবর ব্যাংকক পোস্টের।

তিনি বলেন, “২৫ বছর বয়স থেকেই আমি আমার কর্মচারি ও সচিবদের নির্দেশনা দিয়ে কাজ করিয়ে নিই। তাই আমি নিজে কখনো কম্পিউটার ব্যবহার করি না।”এরপর তাকে প্রশ্ন করা হয় জাপানি পারমাণবিক কার্যক্রমে ইউএসবি ড্রাইভের ব্যবহার আছে কিনা? এর জবাবেও তাকে দ্বিধান্বিত দেখা যায়।

এ ঘটনায় বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্যদের তোপের মুখে পড়েন এই মন্ত্রী।বিরোধী দলের এমপি মাসাতো ইমাই বলেন, “এটা অবিশ্বাস্য। এমন একজন ব্যক্তিকে সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, যিনি কোনো দিন কম্পিউটারই স্পর্শ করেননি।”

পার্লামেন্টে মন্ত্রীর এমন অদ্ভূত জবাব মুহূর্তেই ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। শুরু হয় তার বিরুদ্ধে কঠোর সমালোচনা।

টুইটারে একজন লেখেন, “তার কি লজ্জা লাগে না?”

আরেকজন লেখেন, “আজ (বর্তমানে) সকল কোম্পানির প্রধানরাই কম্পিউটার ব্যবহার করেন। অথচ তিনি নাকি এখনও জানেনই না ইউএসবি কী? একজন সুশীল গরু।”আরেক টুইটার ব্যবহারকারী ব্যঙ্গ করে লেখেন, “সম্ভবত মি. সাকুরাদা নিজস্ব সাইবার নিরাপত্তায় ব্যস্ত।”

আরেকজন লেখেন, “যদি কোনো হ্যাকার মন্ত্রী সাকুরাদাকে টার্গেট করেন, সে কোনো তথ্যই চুরি করতে পারবে না। সত্যি, এরচেয়ে শক্তিশালী নিরাপত্তা আর কী হতে পারে!”সাকুরাদা মাত্র এক মাস আগে সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেন। প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে মন্ত্রিসভায় ব্যাপক রদবদলের সময় তাকে এই দায়িত্ব দেন।

সাকুরাদা সাইবার নিরাপত্তা মন্ত্রণালয় ছাড়াও ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য অলিম্পিক ও প্যারা-অলিম্পিক গেমস বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রধান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।অলিম্পিকের আয়োজন বিষয়ে প্রশ্ন করা হলেও তিনি বলেন, “আমি এ বিষয়ে এখনও বিস্তারিত কিছু জানি না।”এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন জবাবে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন সাকুরাদা।

কিউএনবি/অনিমা/১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং/দুপুর ১:২৮