২৬শে মে, ২০১৯ ইং | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৯:২৩

ভুরুঙ্গামারীতে নানা আয়োজনে পালিত হলো দেশের প্রথম হানাদার মুক্ত দিবস

 

ভূরুঙ্গামারী(কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : স্বাধীনতা যুদ্ধে দেশের প্রথম হানাদার মুক্ত উপজেলা কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলা। এ উপলক্ষে ভুরুঙ্গামারী প্রেসক্লাবের উদ্যোগে নানা আয়োজনে দিনটি পালিত হচ্ছে। আজ ১৪ নভেম্বও বুধবার সকালে প্রেসক্লাব চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষীন করে।

ভুরুঙ্গামারী স্মৃতিস্তম্ভে পুস্প স্তবক অর্পন করা হয়। পরে প্রেসক্লাব চত্বরের মুক্তমঞ্চে ইউএনও শংকর কুমার বিশ^াসের সভাপতিত্বে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণমূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জিলুফা ইয়াসমিন, এএসপি শওকত আলী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সিরাজুল ইসলাম টুকু, প্রেসক্লাব সভাপতি আনোয়ারুল হক, শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক সরকার রাকীব আহমেদ জুয়েল প্রমূখ।

আলোচনা শেষে মুক্তিযুদ্ধসহ সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ৮ ব্যক্তিকে ভুরুঙ্গামারী পাক হানাদার মুক্তদিবস পদক প্রদান করা হয়।এছাড়াও সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ১৪ নভেম্বর এই দিনে মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনী ৪টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে তিন দিক থেকে তীব্র আক্রমণ চালায়।

তুমুল যুদ্ধ শেষে পাকবাহিনীরা রায়গঞ্জের দিকে পিছু হটলে মুক্তি বাহিনী ও মিত্র বাহিনী মিলে ভূরুঙ্গামারী দখলে নেয় এবং বর্তমান উপজেলা পরিষদের সামনে (তৎকালিন সিও অফিস) জাতীয় পতাকা উত্তেলন করে।

 

 

কিউএনবি/অায়শা/১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:০৭

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial