১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:২১

ইন্টারনেট সুবিধাবঞ্চিত হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা

 

ডেস্ক নিউজ : বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চমানের ইন্টারনেট সংযোগের সুবিধা থাকলেও দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এ সুবিধা থেকে বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা। এমনটাই অভিযোগ শিক্ষার্থীদের।

ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় গড়ার লক্ষ্য নিয়ে ২০১৪ সালে সম্পূর্ণ হাবিপ্রবি’র ক্যাম্পাসকে ওয়াই-ফাই (ইন্টারনেট) নেটওয়ার্কের আওতায় আনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কিন্তু কিছুদিন চালানোর পর তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এরপর  দীর্ঘ সাড়ে ৩বছর পার হলেও তা আর সংযোগ দেয়া হয়নি। পরে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে নতুন প্রশাসন আসার পর পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে ওয়াই-ফাই জোন করার ঘোষণা দেওয়া হয়। কিন্তু শুধু টিএসসির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে। এরপরেও আরোপ করা হয় নানা বাধ্যবাধকতা। যেমন, ইন্টারনেট সংযোগ পেতে গেলে রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে, ইউটিউবে ঢোকা যাবে না এবং সন্ধ্যা ৭টা পর হতে চালানো যাবে না ইত্যাদি। তাছাড়াও সংযোগটি খুব ধীরগতি সম্পন্ন। দুর্বল ফ্রিকোয়েন্সির কারণে প্রায়ই সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দিন দিন তথ্য-প্রযুক্তির ব্যবহার থেকে পিছিয়ে যাচ্ছেন। এতে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিরাজ করছে ক্ষোভ আর হতাশা।

বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা বলেন, থিসিস, এসাইনমেন্ট, প্রেজেন্টেশনসহ অনেক কাজে ইন্টারনেটের প্রয়োজন হয়। দিনের বেলায় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন ওয়াইফাই জোনে গিয়ে ইন্টারনেটের সে চাহিদা মেটানো গেলেও রাতে কোনো জরুরি প্রয়োজনে, হলের বাইরে যাওয়ারও উপায় নেই, সেই সঙ্গে মডেমেরও ব্যবহার সবার পক্ষে সম্ভব হয় না। এতে অনেকে পিছিয়ে পড়ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ার মো. সৈকত আলী জানান, হলের নেট সংযোগ নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। ভিসি স্যারকে অবহিত করা হয়েছে। আশা করি দ্রুত সময়ে এ সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. সফিউল আলম জানান, হলগুলোতে ইন্টারনেট সংযোগ প্রদানের প্রক্রিয়া চলছে। শীঘ্রই এটার সংযোগ চালু হচ্ছে। 

 

 

কিউএনবি/অায়শা/১৩ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং /রাত ৮:০৯