ব্রেকিং নিউজ
২০শে জুন, ২০১৯ ইং | ৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ১:৫৯

ঢাকাসহ ৫ জেলার সাথে বগুড়ার ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ

 

ডেস্ক নিউজ : বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার মধ্য দিঘলকান্দী গ্রামের চকচকিয়া ব্রীজের পিলারের নিচে মাটি ধসে যাওয়ায় ঢাকাসহ পাঁচ জেলার সঙ্গে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। শনিবার সকাল ১১টা থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ায় সাধারণ যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েন। উপায় না পেযে ট্রেন যাত্রীরা পায়ে হেঁটে ও বিভিন্ন উপায়ে নিজেদের গন্তব্যে ছুটেছেন। 

বগুড়ার সোনাতলা রেলস্টেশনে দিনাজপুর থেকে সান্তাহারগামী ও লালমনিরহাট থেকে ঢাকাগামী দুটি ট্রেন সকাল থেকে আটকে পড়ে আছে। ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় উত্তরের লালমনিরহাট, রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা ও বগুড়া জেলার ট্রেন যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। বগুড়ার রেল কর্মকর্তারা বলছেন সন্ধ্যা ৭টা থেকে ট্রেন চলাচল করতে পারবে। 

বগুড়া রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা যায়, প্রায় অর্ধ শতাব্দি আগে নির্মিত হয় বগুড়া জেলার সোনাতলা উপজেলার ভেলুরপাড়া ও সৈয়দ আহম্মদ কলেজ রেল স্টেশনের মধ্যবর্তী মধ্য দিঘলকান্দী গ্রামের চকচকিয়া ব্রীজ। বিলের উপর নির্মিত রেল ব্রিজটি দির্ঘদিন ধরে যোগাযোগ রক্ষা করে আসছিল। 

শনিবার সকালে হঠাৎ করেই দেখা যায় ব্রিজের পিলারের নিচে মাটি ধসে গেছে। পরে পিলারের গোড়ালি নড়বড়ে হয়ে আছে এবং ব্রীজের উপরে থাকা রেলসড়কটি বাঁকা হয়ে গেছে। এই বাঁকা রেলসড়ক দিয়ে ট্রেন চলাচল করলে দুর্ঘটনার শঙ্কা রয়েছে। সোনাতলা স্টেশন কর্মকর্তারা লোকমুখে খবর পেয়ে পিলারটি দেখেন এবং রেল চলাচলে ঝুঁকি থাকায় তাৎক্ষণিক ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়।  

রেল সড়ক বেঁকে যাওয়ায় শনিবার বেলা ১১টা থেকে লালমনিরহাট থেকে ঢাকাগামী সকল ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে উত্তরের লালমনিরহাট, রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা ও বগুড়া জেলার ট্রেন যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়েছেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দিনাজপুর থেকে বগুড়ার সান্তাহারগামী দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ব্রীজের নিকট এসে দুর্ঘটনার আশঙ্কায় ভেলুরপাড়া রেল স্টেশনে ফেরত নেওয়া হয়। লালমনিরহাট থেকে ঢাকাগামী লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনও সোনাতলা স্টেশনে দুপুর ১টা থেকে থেমে রাখা হয়েছে। যাত্রীরা স্টেশনে আসবার পর বাস, সিএনজিসহ বিভিন্ন যানবাহনের মাধ্যমে তাদের গন্তব্যে চলে গেছে। 

ঘটনার পর থেকে রেল বিভাগের কর্মচারীরা ট্রেন চলাচল সাভাবিক করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সরেজমিনে দুপুর দেড়টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে রেলওয়ে কর্মচারীদের কাজ করতে দেখা যায়। তবে উর্ধ্বতন কোনো কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি।বগুড়ার সোনাতলা স্টেশন মাস্টার আব্দুল হামিদ জানান, রেল সড়ক বেঁকে যাওয়ায় ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনও দুপুর ১টা ৯মিনিট থেকে সোনাতলা স্টেশনে থামিয়ে রাখা হয়েছে।

বগুড়া রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার বেঞ্জুরুল ইসলাম জানান, ব্রীজের নিচের মাটি ধসে গেছে এমন সংবাদ পাওয়া গেছে। শ্রমিকরা কাজ করছে। রেলের শ্রমিকরা জানিয়েছেন সমস্যা সমাধান হলে রাত থেকে ট্রেন চলাচল করতে পারবে। 

কিউএনবি/অনিমা/২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/রাত ৮:৩৪

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial