২২শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৩৯

বীরগঞ্জের অর্জুনাহার আশ্রায়ন প্রকল্পের জমি দখল করে ঘর নির্মান,বাধা দেওয়ায় ভুমিহীদেরকে মামলার হুমকী

 

এন.আই.মিলন, দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনয়নের অর্জুনাহার গ্রামে ভুমিহীনদের পূর্ণবাসনের লক্ষে ২০০১ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্র্দ্দেশে তৎকালিন দিনাজপুরর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুর রৌফ চৌধুরী ১৬ একর ৭৯ শতক জমির উপর অর্জুনাহার আশ্রায়ন প্রকল্প তৈরি করে ২টি ব্যারাকে ৯০টি করে ১৮০টি ভুমিহীন পরিবারকে পূর্ণবাসন করেন।বর্তমান সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বিদুৎ ব্যাবস্থা করেন।

আশ্রায়ন প্রকল্পবাসীদের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে জানাযায়, স্থানীয় ইউপি সদস্য নুর ইসলামের নেতৃত্বে কয়েকজন ক্ষমতাধর ভুমি দস্যু আশ্রায়ান প্রকল্পের দক্ষিন পার্শ্বে রাস্তার ধারের ঘর নির্মাণ করে জমি দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।আশ্রায়ন বাসীরা বাধা দিলে তাদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী ও মারধরের হুমকি দিচ্ছে দখলদার বাহিনী।

গত ২১ সেপ্টেম্বর সরজমিনে গেলে সমিতির সাধারন সম্পাদক পদ্যলোচন জানায়, আমারা ১৮০টি পরিবার ২ টি সমিতি গঠন করে সু-সৃক্ষল ভাবে অতি কষ্টে বিভিন্ন কর্মকরে আশ্রায়নের পুকুরে মাছচাষ ও গাছ পালা লাগিয়ে সেখান হতে প্রায় ৭/৮ লক্ষ টাকা নিজেরা না নিয়ে আশ্রায়ন বাসীর মঙ্গলের জন্য উক্ত স্থানে ১টি মার্কেট নির্মান করে সে আয় দিয়ে সংসার গুলির অর্থ কষ্ট লাঘবের চেষ্টা করছি।কিন্তু ভুমি সদ্যুদের কারনে আমরা নিরুপায় হয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে একাধীক বার অভিযোগ দিয়েও ভুমি দস্যুদের উচ্ছেদের ব্যাপারে কোন সহযোগিতা পাইনি।

এসময় আশ্রায়ন প্রকল্পে বসবাস কারী ও সমিতির নেতা মহেন্দ্র বর্ম্মন, করিম আলী, তোজাম্মেল হক, হাফিজুল ইসলাম, আজাহার আলী জানায়, ভুমি দস্যুদের উচ্ছেদ ও মার্কেট নির্মানের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক, বীরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম, বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর আশু হস্তাক্ষেপ কামনা করছি।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৬:৫১