২২শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১১:৫৩

কুমিল্লায় খালেদার জামিন শুনানি ফের পিছিয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর

 

ডেস্ক  নিউজ  : কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নৈশকোচে দুর্বৃত্তদের পেট্রোল বোমা হামলায় ৮ জন যাত্রী পুড়িয়ে হত্যার মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি ফের পিছিয়েছেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষের সময় আবেদনের প্রেক্ষিতে কুমিল্লার ৫নং আমলী আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মাহবুব খান বৃহস্পতিবার দুপুরে এ মামলায় আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর জামিন শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

জানা গেছে, বিএনপি-জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোটের ডাকা হরতাল-অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের একটি নৈশ কোচ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জগমোহনপুর নামক স্থানে পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা বাসটি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে। এতে আগুনে পুড়ে ঘটনাস্থলে বাসের ৭ জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পর একজনসহ মোট ৮ ঘুমন্ত যাত্রী মারা যায়।
এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে ৭৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলায় খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ছয়জন নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়। ৭৭জন আসামির মধ্যে তিনজন মারা যান, পাঁচজনকে চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়। খালেদা জিয়াসহ অপর ৬৯ জনের বিরুদ্ধে কুমিল্লা আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন। 
এ মামলায় গত ১২ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি হয়। ওইদিন জামিন শুনানির এক পর্যায়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত বৃহস্পতিবার তারিখ ধার্য করেন। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপক্ষ আবারও সময়ের আবেদন জানালে আদালত আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর জামিন শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করেন।
খালেদা জিয়ার পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু বলেন, এ মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের একাধিক শুনানি হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের লক্ষ্য এভাবে বারংবার সময়ের আবেদনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান লিটন বলেন, এখানে আইনের চর্চা চলছে, আইন তার নিজস্ব গতিতে চলছে।
কিউএনবি/আয়শা/২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/রাত ৮:১৮