২২শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১১:৩৬

যুক্তরাষ্ট্রে ফিলিস্তিন প্রতিনিধির বসবাস নিষিদ্ধ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশন’র (পিএলও) প্রতিনিধি হুসাম জমলতের বসবাসের অনুমোদন বাতিল এবং তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলো বন্ধ করে দিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

গতকাল সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮) ফিলিস্তিনের সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে একথা জানিয়েছে  সিএনএন।

এখানকার কর্মকর্তাদের সব কার্যক্রম বন্ধ এবং আগামী ১৩ অক্টোবরের মধ্যেই জায়গা খালি করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। হোয়াইট হাউস পিএলও’র ওয়াশিংটন অফিস বন্ধ ঘোষণা করার এক সপ্তাহ পর এই পদক্ষেপ নেয়া হলো।

আমেরিকান দূতাবাস ইসরায়েলের তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত মোকাবেলার জন্য জমলতকে ডেকে পাঠান পিএলও প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। এরপর আর যুক্তরাষ্ট্রে যাননি জমলত।

ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়েছেন পিএলও নির্বাহী কমিটির সদস্য হানান আশরায়ী।  তিনি বলেন, এটি সব কূটনৈতিক প্রটোকলের বিরোধিতা। মনে হচ্ছে যেন আমাদের ওয়াশিংটনের অফিস বন্ধ করে সাধ মেটেনি যুক্তরাষ্ট্রের।

তিনি বলেন, এটি ট্রাম্প প্রশাসনের একটি প্রতিহিংসাপরায়ণ সিদ্ধান্ত। চাপ প্রয়োগ এবং ব্ল্যাকমেইলের মাধ্যমে ফিলিস্তিনকে একটি নতুন পর্যায়ে নেয়ার চেষ্টা করছে যুক্তরাষ্ট্র।

এর আগে গত ১০ সেপ্টেম্বর পিএলওর সেক্রেটারি জেনারেল সায়েব এরেকাত এক বিবৃতিতে জানান, ওয়াশিংটনে পিএলও কার্যালয় বন্ধ করে দিতে নোটিশ পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

উল্লেখ্য, ইসরায়েলের সঙ্গে বিরোধ নিরসনে যুক্তরাষ্ট্র সবসময় ফিলিস্তিনকেই চাপ দিয়ে আসছে। ট্রাম্প যুগে এটা আরও স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এর আগে স্বাস্থ্য ও শিক্ষা খাতে জাতিসংঘের সাহায্য কমিয়ে দেয়ার কথা বলে যুক্তরাষ্ট্র।

গত বছর থেকে ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের  ওপর আমেরিকা-ইসরায়েলের শান্তিনীতি গ্রহণ করতে বারবার ট্রাম্পকে চাপ দিয়ে আসছেন তার জামাতা ও উপদেষ্টা জ্যারেড কুশনার।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/সন্ধ্যা ৭:৩৩