২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৪২

পরিমাপ লঙ্ঘন করলে ২ বছরের দণ্ড ও ২০ লাখ টাকা জরিমানার বিধান

নিউজ ডেস্কঃ  নিবন্ধন সনদ ব্যতিত মোড়কজাত পণ্য উৎপাদন, বিপণন, বিক্রয় করলে এক বছরের কারাদণ্ড বা এক লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে সংসদে ‘ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড আইন ২০১৮ বিল সংসদে উত্থাপিত হয়েছে। একইসঙ্গে নিবন্ধন সনদ ছাড়া এলপিজি, এলএনজি বটলিং, টার্মিনাল ও ফিলিং স্টেশন পরিচালনা করলেও একই দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া ইমারত বা স্থাপনা তৈরি বা মেরামতে সিডিউলে ঘোষিত পরিমাপ লঙ্ঘন করলে ২ বছরের কারাদণ্ড ও ২০ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বুধবার সংসদের ২২তম অধিবেশনে বিলটি উত্থাপন করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। পরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিলের ওপর রিপোর্ট প্রদান করার জন্য বিলটি সংশ্লিষ্ট সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।

‘ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড আইন ২০১৮ বিলে প্রচলিত ওজনের মানদণ্ডের পাশাপাশি আধুনিক জীবন যাত্রার সকল পরিমাপকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। প্রতি সেকেন্ডে ইন্টারনেটে মেগাবাইটসের হিসাবের মানদণ্ডসহ নেটের ট্রাফিক ডেনসিটি, ফ্রিকোয়েন্সি, ব্যান্ডউইথের হিসাব থেকে বাতাসে শব্দের তীব্রতার চাপ পরিমাপ, তাপমাত্রা পরিমাপ, ফোর্স বা বলের পরিমাপসহ ওজন বা পরিমাপ বা সংখ্যামানের মানদণ্ডের ১৩টি পরিমাপের একককে নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। বিলে মানদণ্ড ব্যতীত ওজন যন্ত্র তৈরি, বিপণন ও বিক্রয়ের জন্য এক বছরের কারাদণ্ড বা এক লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। ফৌজদারি কার্যবিধি অনুযায়ী অপরাধ আমলে নেওয়া হবে। প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ও ভ্রাম্যমাণ আদালতে অপরাধ বিচারের বিধানও বিলে অন্তভুক্ত করা হয়েছে।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আদালতের নির্দেশে দি স্ট্যান্ডার্ডস অব ওয়েটস এন্ড মেজার্স অর্ডিন্যান্স ১৯৮২ কার্যকারিতা হারায়। পরবর্তীতে আবশ্যকতা বিবেচনায় অধ্যাদেশসমূহ সংশোধন ও পরিমার্জন করে নতুন আইন প্রণয়নের নির্দেশনা দেওয়া হয়। দি স্ট্যান্ডার্ডস অব ওয়েটস এন্ড মেজার্স অর্ডিন্যান্স ১৯৮২ ও দি স্ট্যান্ডার্ডস অব ওয়েটস এন্ড মেজার্স (সংশোধিত) আইন ২০০১ দুটি সংশোধনসংযোজন পূর্বক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহৃত এককসমূহ তফসিলে সন্নিবেশপূর্বক ‘ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড আইন ২০১৮ বিল প্রণয়ন করা হয়। বিলে ৭৩টি ধারা ও একটি পুণর্গঠিত তফসিল রয়েছে।

বুদবার সংসদে ‘হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট আইন ২০১৮’ বিল ও বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন বিল উত্থাপিত হয়েছে।

কিউএনবি/নিল/ ১২ সেপ্টেম্বর,২০১৮/২১ঃ৩৪