২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:০৭

টুইটারে মিথ্যা তথ্য, ১০ বছর লিখতে গিয়ে ১০০ বছর লিখলেন ট্রাম্প!

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে টুইটার অ্যাকাউন্টে মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। যুক্তরাষ্ট্রে গত ১০০ বছরে প্রথমবারের মতো বেকারত্বের হারের (৩.৯%) চেয়ে জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) হার (চার দশমিক ২ শতাংশ) বেশি বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

গতকাল সোমবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে দেয়া এক পোস্টে তিনি এই মিথ্যা তথ্য তুলে ধরেন বলে জানিয়েছে দ্য নিউইয়র্ক টাইমস।

এই বছরের এপ্রিলে তিন দশমিক নয় শতাংশ এবং মে’তে তিন দশমিক আট শতাংশ এবং জুনে চার শতাংশ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের বেকারত্বের হার। এই সময়ে দেশটির বার্ষিক জিডিপির হার বেড়ে চার দশমিক দুই শতাংশ হয়।

তাই গত ১০০ বছরে বেকারত্বের চেয়ে জিডিপির হার বেশি হয়নি বলে ভুল করেছেন ট্রাম্প। প্রকৃতপক্ষে, দেশটির ‘ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব সেন্ট লুইস’র তথ্য অনুযায়ী, ১৯৪৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত ১৮৫ বার এমনটি হয়েছে।

এর আগে ২০০৬ সালের জানুয়ারিতে চার দশমিক সাত শতাংশ, ফেব্রুয়ারিতে চার দশমিক আট এবং মার্চেও চার দশমিক সাত শতাংশ ছিল দেশটির বেকারত্বের হার। এই সময়ে জিডিপির হার বেড়ে পাঁচ দশমিক চার শতাংশ হয়।

এক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ব্যবধানটি দেখা যায় ১৯৫০ সালের সেপ্টেম্বরে। এই সময় যুক্তরাষ্ট্রে বেকারত্বের হার চার দশমিক চার এবং জিডিপির হার ১৬ দশমিক পাঁচ ছিল।

দেশটির ‘কাউন্সিল অব ইকোনোমিক অ্যাডভাইজরস’র চেয়ারম্যান কেভিন হ্যাসেট সোমবার একটি সংবাদ সম্মেলনে স্বীকার করেন, ট্রাম্পের টুইটের তথ্য সঠিক ছিল না।

তিনি বলেন, সত্য হলো এটা গত ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। হতে পারে, একটা শূন্য যোগ করে ১০ বছরের বদলে ১০০ বছর করেই কেউ তার কাছে এই তথ্য দিয়েছে। এটা করা তাদের উচিত হয়নি।

কিউএনবি/রেশমা/১২ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/সকাল ৯:৩৬