২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:০৭

সৌদির বিরুদ্ধে কঠোর সমালোচনায় পাকিস্তান

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সৌদি আরব নারী ও শিশুসহ ইয়েমেনের নিরপরাধ মানুষের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে বহুবার মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে বলে তীব্র সমালোচনা করেছেন পাকিস্তানের মানবাধিকারবিষয়ক মন্ত্রী শিরিন মাযারি।

তিনি পাশ্চাত্য বিশেষ করে আমেরিকার ওপর নির্ভরশীল না হয়ে বরং ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা বা ওআইসির মাধ্যমে নিজেদের মধ্যকার সংকট নিরসনের জন্য মুসলিম দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান।

সম্প্রতি ইয়েমেনের একটি বাসে সৌদি আরবের বিমান হামলায় বহু শিশু নিহত হওয়ার কথা উল্লেখ করে পাকিস্তানের এ মন্ত্রী ইয়েমেনে আগ্রাসন বন্ধের জন্য রিয়াদের প্রতি আহ্বান জানান।

পাকিস্তানের কোনো পদস্থ কর্মকর্তার পক্ষ থেকে ইয়েমেনে সৌদি অপরাধযজ্ঞের নিন্দা জানানো ও একে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান হিসেবে আখ্যায়িত করার ঘটনা এটাই প্রথম।

এ থেকে বোঝা যায়, ইমরান খানের নেতৃত্বে পাকিস্তানের নতুন প্রশাসন ইয়েমেন ইস্যুতে সৌদি আরবের সঙ্গে সহযোগিতার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করে দেখছে।

একই সঙ্গে মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐক্য ও সহযোগিতা জোরদার করারও চেষ্টা করছে পাক সরকার।

এর আগে পাকিস্তানের নওয়াজ শরিফ সরকার ইয়েমেন ইস্যুতে সৌদি আরবের সঙ্গে সরাসরি সহযোগিতা না করলেও তৎকালীন সেনাপ্রধান রাহিল শরিফ সামরিক প্রশিক্ষণের কথা বলে ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি আরবের সঙ্গে সহযোগিতা বজায় রেখেছিলেন।

এদিকে মুসলিম দেশগুলোর ওপর আমেরিকার চাপ বৃদ্ধির কারণে এ দেশগুলোর মধ্যে ঐক্য ও সংহতি আরও জরুরি হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় ইমরান খানের পদক্ষেপ ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/ ১১ সেপ্টেম্বর,২০১৮/রাত ৮:৪১