২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১০:১৮

শরীয়তপুরে বাস চাপায় শিশু নিহত’ ঘাতক বাস পুড়িয়ে দিয়েছে উত্তেজিত জনতা

 

খোরশেদ আলম বাবুল শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুরে নুরুন্নাহার (৬) নামে এক শিশুর বাস চাপায় মুত্যু হয়েছে। সোমবার বিকাল পৌনে ৫টার দিকে সদর উপজেলার রুদ্রকর ইউনিয়ননের মালত কান্দি গ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। উত্তেজিত জনতা ঘাতক বাস চালক ও হেল্পারকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে হস্তান্তর করেছে। প্রথমে ঘাতক বাস ভাংচুর করে, পরবর্তীতে বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে এলাকাবাসী। শরীয়তপুর ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রেণে আনে ও পালং মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

নিহতের পরিবার ও পালং মডেল থানা সূত্র জানায়, বাস চাপায় নিহত নুরুন্নাহার রুদ্রকর ইউনিয়নের জাগির গ্রামের আজগর মাঝির মেয়ে। নুরুন্নাহার তার সমবয়সী আরও বন্ধুদের সাথে শরীয়তপুর-নাড়েপাড়া সড়কের মালত কান্দি এলাকার সড়ক দিয়ে যাচ্ছিল। নাগেরপাড়া থেকে ছেড়ে আসা (ঢাকা মেট্রো-জ ১৪-১০৩) আহাম্মদ আমজাদিয়া নামক একটা যাত্রিবাহী বাস নুরুন্নাহারকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই নুরুন্নাহারের মৃত্যু হয়।

পালং মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, পালং থানার শেষ প্রান্তে রুদ্রকর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহত নুরুন্নাহার তার সমবয়সী আরও ৫/৬জন বন্ধুদের নিয়ে যাচ্ছিল। নাগেরপাড়া থেকে ছেড়ে আসা দ্রুত গতির বাসটি শিশুদের দিকে তেড়ে আসতে দেখে নুরুন্নাহারের অন্যান্য বন্ধুরা লাফিয়ে পাশে পড়ে। এ সময় বাসটি নুরুন্নাহারকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই নুরুন্নাহারের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় জনতা বাস চালক ও হেল্পারকে আটক করে রাখে। এ সময় উত্তেজিত জনতা প্রথমে বাস ভাঙ্গচুর করে। পরে কে বা কাহারা বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। বাসিটি ঘটনাস্থলেই ভস্মিভুত হয়ে গেছে।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১০ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং/রাত ৯:৩৯